সম্পত্তি ভাগ করেছেন অমিতাভ বচ্চন, কত পাচ্ছেন অভিষেক?

17

নিউজ ডেস্ক: ‘প্রতীক্ষা’ নামের বাংলোটি সম্প্রতি কন্যা শ্বেতা বচ্চন নন্দার নামে লিখে দিয়েছেন অমিতাভ বচ্চন। এটি মূলত বাবা হরিবংশ রাই বচ্চনের কাছ থেকে পাওয়া।
এবার জানা গেল, নিজের সব সম্পত্তি সন্তানদের মধ্যে ভাগ করে দিচ্ছেন অমিতাভ।

আরও পড়ুন: এ কেমন ঘোষণা দিলেন মাহি!

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, নিজের তিন হাজার ১৬০ কোটি রুপির সম্পত্তির ভাগ কীভাবে হবে, জানিয়েছেন অমিতাভ বচ্চন।

তিনি জানান, তার সম্পত্তি দুই সন্তানের মধ্যে সমান ভাগ হবে। ছোটবেলা থেকেই ছেলে ও মেয়ের মধ্যে কোনো তফাৎ করেননি তিনি। তাই সম্পত্তির ক্ষেত্রেও দুই সন্তান সমান ভাগ পাবেন। সে হিসাবে অভিষেক বচ্চন ও শ্বেতা বচ্চনের প্রত্যেকে এক হাজার ৬০০ কোটি রুপির মতো সম্পত্তি পাবেন।

মেয়ে শ্বেতাকে দেওয়া ‘প্রতীক্ষা’র দাম দাঁড়িয়েছে ৫০ কোটি ৬৩ লাখ রুপি। জুহুতে বেশ পরিচিত এই বাড়ির দানপত্রের স্ট্যাম্প ডিউটিসহ মূল্য ৫০ কোটি ৬৫ লাখ রুপি।

এই বাংলো ছাড়াও জুহুতে অমিতাভ বচ্চনের ‘প্রতীক্ষা’, ‘জনক’ ও ‘জলসা’ নামে তিনটি বাংলো আছে। তবে ছেলে অভিষেক কোন কোন সম্পত্তি পাচ্ছেন, তা গোপন রেখেছে বচ্চন পরিবার।

বাবার সম্পত্তি ছাড়া এই মুহূর্তে ২৮০ কোটি রুপির সম্পত্তির অধিকারী অভিষেক বচ্চন। এই ২৮০ কোটি রুপির সঙ্গে যদি বাবার সম্পত্তি যোগ হয়, তা গিয়ে দাঁড়াবে মোট ১ হাজার ৮৬০ কোটি রুপি।

আর অমিতাভের মেয়ে শ্বেতা এ মুহূর্তে ১১০ কোটি রুপির মালিক। বাবার থেকে পাওয়া সম্পদ যোগ হলে তার সম্পত্তি হবে প্রায় ১ হাজার ৬৯০ কোটি রুপির বেশি।

সূত্র: যুগান্তর