অমিতাভ বচ্চনের নাম ছবি ও কণ্ঠস্বর ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা

8
বলিউডের শক্তিমান অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন। বিভিন্ন সময় পণ্যের বিজ্ঞাপনে তার নাম, ছবি ও কণ্ঠস্বর ব্যবহার করা হয়। nagad-300-250 কিছু বিজ্ঞাপনে অমিতাভ সশরীরে উপস্থিত থাকেন। আবার কিছু বিজ্ঞাপনের খবর তিনি নিজেও জানেন না। এই ‘না জানা’ বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে অর্থনৈতিক লাভবান হচ্ছে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান। অথচ বিজ্ঞাপন নির্মাতা কিংবা সেসব প্রতিষ্ঠান অমিতাভের ছবি বা কণ্ঠস্বর ব্যবহারে নেননি কোনো অনুমতি! এমন অভিযোগ অনেক আগে থেকেই করে আসছেন অমিতাভ। কাজ হয়নি। তাই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন এ অভিনেতা। তার অভিযোগের ভিত্তিতে অমিতাভ বচ্চনের পক্ষেই রায় দিলেন আদালত। এখন থেকে পূর্ব অনুমতি ছাড়া তার ছবি, নাম কিংবা কণ্ঠস্বর কোনো রকম ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যাবে না। বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্যে যেখানে-সেখানে অমিতাভ বচ্চনের ছবি আর ঝুলিয়ে রাখা যাবে না। শুনতে ভালো লাগলেও ভিডিও কিংবা অডিওর মধ্যে অমিতাভের কণ্ঠস্বর আর ব্যবহার করতে পারবেন না, সে অমিতাভ বচ্চনের যত বড় ভক্তই হোন না কেন। এমনই নির্দেশ দিয়েছেন দিল্লি হাইকোর্ট। গত ২৫ নভেম্বর এ বিধিনিষেধ জারি করা হয় বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম। আদেশে বলা হয়, অমিতাভের অনুমতি ছাড়া তার ছবি, নাম কিংবা কণ্ঠস্বর কোনো রকম ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যাবে না। পাশাপাশি, তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় থেকে শুরু করে টেলিকম পরিষেবা প্রদানকারীদেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, এ ধরনের যা কিছু বাজারে রয়েছে সেসব তুলে নিতে হবে। আদালত পর্যবেক্ষণে বলেন, ‘তিনি (অমিতাভ) একজন সুপরিচিত ব্যক্তিত্ব, যাকে বহু বিজ্ঞাপনের মুখ হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু সবই যে অনুমতি নিয়ে করা হয়েছে এমনটা নয়। এতেই ক্ষুব্ধ বিগ বি। বিষয়টি এখানেই রহিত করা হলো।’

নিউজ ডেস্ক: বলিউডের শক্তিমান অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন। বিভিন্ন সময় পণ্যের বিজ্ঞাপনে তার নাম, ছবি ও কণ্ঠস্বর ব্যবহার করা হয়।

কিছু বিজ্ঞাপনে অমিতাভ সশরীরে উপস্থিত থাকেন। আবার কিছু বিজ্ঞাপনের খবর তিনি নিজেও জানেন না।

এই ‘না জানা’ বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে অর্থনৈতিক লাভবান হচ্ছে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান। অথচ বিজ্ঞাপন নির্মাতা কিংবা সেসব প্রতিষ্ঠান অমিতাভের ছবি বা কণ্ঠস্বর ব্যবহারে নেননি কোনো অনুমতি! এমন অভিযোগ অনেক আগে থেকেই করে আসছেন অমিতাভ। কাজ হয়নি।

তাই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন এ অভিনেতা। তার অভিযোগের ভিত্তিতে অমিতাভ বচ্চনের পক্ষেই রায় দিলেন আদালত। এখন থেকে পূর্ব অনুমতি ছাড়া তার ছবি, নাম কিংবা কণ্ঠস্বর কোনো রকম ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যাবে না।

বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্যে যেখানে-সেখানে অমিতাভ বচ্চনের ছবি আর ঝুলিয়ে রাখা যাবে না। শুনতে ভালো লাগলেও ভিডিও কিংবা অডিওর মধ্যে অমিতাভের কণ্ঠস্বর আর ব্যবহার করতে পারবেন না, সে অমিতাভ বচ্চনের যত বড় ভক্তই হোন না কেন।

এমনই নির্দেশ দিয়েছেন দিল্লি হাইকোর্ট। গত ২৫ নভেম্বর এ বিধিনিষেধ জারি করা হয় বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম। আদেশে বলা হয়, অমিতাভের অনুমতি ছাড়া তার ছবি, নাম কিংবা কণ্ঠস্বর কোনো রকম ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যাবে না।

পাশাপাশি, তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় থেকে শুরু করে টেলিকম পরিষেবা প্রদানকারীদেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, এ ধরনের যা কিছু বাজারে রয়েছে সেসব তুলে নিতে হবে।

আদালত পর্যবেক্ষণে বলেন, ‘তিনি (অমিতাভ) একজন সুপরিচিত ব্যক্তিত্ব, যাকে বহু বিজ্ঞাপনের মুখ হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু সবই যে অনুমতি নিয়ে করা হয়েছে এমনটা নয়। এতেই ক্ষুব্ধ বিগ বি। বিষয়টি এখানেই রহিত করা হলো।’

সূত্র: যুগান্তর