তারা খুব একমাত্রিক খেলোয়াড়: হাফিজ

4
এশিয়া কাপে পাকিস্তান দলে বোলিংয়ে কোনো খামতি না পাওয়া গেলেও ব্যাটিংয়ে দুর্বলতা দেখা গেছে। রান পাননি দলের সেরা ব্যাটার বাবর আজম ও ফখর জামান। এ ছাড়া মিডলঅর্ডারে চরম ব্যর্থতা লক্ষ্য করা গেছে। অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই বিষয়টি ভাবাচ্ছে পাকিস্তান টিম ম্যানেজমেন্টকে। এমন পরিস্থিতিতে শুধু সেরা তিন ব্যাটারের ওপর নির্ভর করে মাঠে না নামার পরামর্শ দিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ হাফিজ। পাশাপাশি মিডলঅর্ডারের খুশদিল শাহ ও আসিফ আলিকে এক হাত নিলেন তিনি। খুশদিল ও আসিফ আলির মতো খেলোয়াড়দের কারণে এশিয়া কাপে পাকিস্তানের মিডলঅর্ডার ব্যর্থ হয়েছিল বলে দাবি করেন হাফিজ। ক্রিকেট পাকিস্তানের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাত্কারে মোহাম্মদ হাফিজ বলেন, ইনিংস বড় করতে খুশদিল ও আসিফের ওপর নির্ভর করা ঠিক হবে না। কারণ তারা খুব একমাত্রিক খেলোয়াড়। খুশদিলের স্ট্রাইকরেট মাত্র ১১০। অথচ আমরা তাকে আন্তর্জাতিক ম্যাচে হিটার হিসেবে বিবেচনা করি। এটি একেবারেই ঠিক নয়। বিষয়টি নিয়ে আমাদের ভাবনার গভীরে যেতে হবে। আমাদের নিজেদের প্রশ্ন করতে হবে, এ খেলোয়াড়দের (খুশদিল ও আসিফ) কি চাপ নেওয়ার ক্ষমতা আছে? বাবর ও রিজওয়ানের উইকেট দ্রুত পড়ে গেলে কি তারা ইনিংস গড়তে পারবে? আর আমরা এ খেলোয়াড়দের মিডলঅর্ডারের জন্য নির্বাচন করেছি যেখানে আমাদের টপ-অর্ডার উইকেটে থিতু হতে সময় নেয়। বিষয়টি হাস্যকর। তবে বিতর্ককে নাকচ করে দিয়ে বাবর ও রিজওয়ানের জুটিকে পাকিস্তানের সেরা জুটি বললেন হাফিজ। এ স্পিন-অলরাউন্ডার বলেন, আমি আগেও বলেছি— বাবর ও রিজওয়ান পাকিস্তানের এক নম্বর জুটি। তারা পাকিস্তান ক্রিকেটকে জিততে ও বড় হতে সাহায্য করেছে। তবে তাদের রানের জন্য ক্ষুধা বাড়াতে হবে। তাদের উভয়ের ব্যাটিংয়ে উন্নতি আনতে হবে। হাফিজ বলেন, আপনি সবসময় সফল হবেন না, সবসময় ধারাবাহিকতা থাকবে না। কিন্তু প্রতিপক্ষের ওপর যতটা প্রভাব বিস্তার করে খেলা যায় ততটাই ভালো। আমার বক্তব্যের উদ্দেশ্য এটিই।

নিউজ ডেস্ক: এশিয়া কাপে পাকিস্তান দলে বোলিংয়ে কোনো খামতি না পাওয়া গেলেও ব্যাটিংয়ে দুর্বলতা দেখা গেছে।

রান পাননি দলের সেরা ব্যাটার বাবর আজম ও ফখর জামান। এ ছাড়া মিডলঅর্ডারে চরম ব্যর্থতা লক্ষ্য করা গেছে।

অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই বিষয়টি ভাবাচ্ছে পাকিস্তান টিম ম্যানেজমেন্টকে।

এমন পরিস্থিতিতে শুধু সেরা তিন ব্যাটারের ওপর নির্ভর করে মাঠে না নামার পরামর্শ দিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ হাফিজ। পাশাপাশি মিডলঅর্ডারের খুশদিল শাহ ও আসিফ আলিকে এক হাত নিলেন তিনি।

খুশদিল ও আসিফ আলির মতো খেলোয়াড়দের কারণে এশিয়া কাপে পাকিস্তানের মিডলঅর্ডার ব্যর্থ হয়েছিল বলে দাবি করেন হাফিজ।

ক্রিকেট পাকিস্তানের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাত্কারে মোহাম্মদ হাফিজ বলেন, ইনিংস বড় করতে খুশদিল ও আসিফের ওপর নির্ভর করা ঠিক হবে না। কারণ তারা খুব একমাত্রিক খেলোয়াড়। খুশদিলের স্ট্রাইকরেট মাত্র ১১০। অথচ আমরা তাকে আন্তর্জাতিক ম্যাচে হিটার হিসেবে বিবেচনা করি। এটি একেবারেই ঠিক নয়। বিষয়টি নিয়ে আমাদের ভাবনার গভীরে যেতে হবে। আমাদের নিজেদের প্রশ্ন করতে হবে, এ খেলোয়াড়দের (খুশদিল ও আসিফ) কি চাপ নেওয়ার ক্ষমতা আছে? বাবর ও রিজওয়ানের উইকেট দ্রুত পড়ে গেলে কি তারা ইনিংস গড়তে পারবে? আর আমরা এ খেলোয়াড়দের মিডলঅর্ডারের জন্য নির্বাচন করেছি যেখানে আমাদের টপ-অর্ডার উইকেটে থিতু হতে সময় নেয়। বিষয়টি হাস্যকর।

তবে বিতর্ককে নাকচ করে দিয়ে বাবর ও রিজওয়ানের জুটিকে পাকিস্তানের সেরা জুটি বললেন হাফিজ।

এ স্পিন-অলরাউন্ডার বলেন, আমি আগেও বলেছি— বাবর ও রিজওয়ান পাকিস্তানের এক নম্বর জুটি। তারা পাকিস্তান ক্রিকেটকে জিততে ও বড় হতে সাহায্য করেছে। তবে তাদের রানের জন্য ক্ষুধা বাড়াতে হবে। তাদের উভয়ের ব্যাটিংয়ে উন্নতি আনতে হবে।

হাফিজ বলেন, আপনি সবসময় সফল হবেন না, সবসময় ধারাবাহিকতা থাকবে না। কিন্তু প্রতিপক্ষের ওপর যতটা প্রভাব বিস্তার করে খেলা যায় ততটাই ভালো। আমার বক্তব্যের উদ্দেশ্য এটিই।

সূত্র: যুগান্তর