নতুন ৪৩৮ জনের করোনা শনাক্ত, ১ জনের মৃত্যু

4
দেশে টানা চতুর্থ দিনের মত চারশর বেশি কোভিড রোগী শনাক্ত হয়েছে; মৃত্যু হয়েছে আরও একজনের। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, বুধবার সকাল থেকে বৃহস্পতিবার সকাল এই তথ্য পাওয়া গেছে। এই ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ৯২০টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪৩৮ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এতে নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার বেড়ে হয়েছে ৮ দশমিক ৯০ শতাংশ। আগের দিন এই হার ৮ দশমিক ৪১ শতাংশ ছিল। এ নিয়ে দেশে শনাক্ত মোট কোভিড রোগীর সংখ্যা বেড়ে ২০ লাখ ১৬ হাজার ৫৮৩ জন হয়েছে। তাদের মধ্যে মোট ২৯ হাজার ৩৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০৩ জন কোভিড রোগীর সেরে ওঠেছে। তাদের নিয়ে এ পর্যন্ত সুস্থ হলেন ১৯ লাখ ৫৯ হাজার ৭৮৭ জন। দেড় মাস পর গত সোমবার শনাক্ত রোগীর সংখ্যা আবারও চারশ ছাড়ায়, মোট ৪২১ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ে সেদিন। এরপর মঙ্গলবার ৪৩৫ জন এবং বুধবার ৪০২ জন নতুন কোভিড শনাক্তের খবর আসে। দেশে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে ২০২০ সালের ৮মার্চ। এর ১০দিন পর প্রথম মৃত্যু হয়।

নিউজ ডেস্ক: দেশে টানা চতুর্থ দিনের মত চারশর বেশি কোভিড রোগী শনাক্ত হয়েছে; মৃত্যু হয়েছে আরও একজনের।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, বুধবার সকাল থেকে বৃহস্পতিবার সকাল এই তথ্য পাওয়া গেছে।  এই ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ৯২০টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪৩৮ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে।

এতে নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার বেড়ে হয়েছে ৮ দশমিক ৯০ শতাংশ। আগের দিন এই হার ৮ দশমিক ৪১ শতাংশ ছিল।

এ নিয়ে দেশে শনাক্ত মোট কোভিড রোগীর সংখ্যা বেড়ে ২০ লাখ ১৬ হাজার ৫৮৩ জন হয়েছে। তাদের মধ্যে মোট ২৯ হাজার ৩৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০৩ জন কোভিড রোগীর সেরে ওঠেছে। তাদের নিয়ে এ পর্যন্ত সুস্থ হলেন ১৯ লাখ ৫৯ হাজার ৭৮৭ জন।

দেড় মাস পর গত সোমবার শনাক্ত রোগীর সংখ্যা আবারও চারশ ছাড়ায়, মোট ৪২১ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ে সেদিন। এরপর মঙ্গলবার ৪৩৫ জন এবং বুধবার ৪০২ জন নতুন কোভিড শনাক্তের খবর আসে।

দেশে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে ২০২০ সালের ৮মার্চ।  এর ১০দিন পর প্রথম মৃত্যু হয়।

সূত্র: যুগান্তর