জেলেনস্কির জন্মস্থানে রাশিয়ার মিসাইল হামলা

2
ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কির জন্মস্থান ক্রাইভি রিহ-তে অবস্থিত একটি জলাধারের বাঁধে মিসাইল হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। এতে সেখানে বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এই হামলার পর সেখানে থাকা সাধারণ মানুষকে সরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ইউক্রেনের কর্মকর্তারা। ইউক্রেনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সেখানে আটটি ক্রুস মিসাইল ছুড়েছে রুশ বাহিনী। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকালে এক ভিডিও বার্তায় জলাধারের বাঁধে হামলার ব্যাপারে প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কি বলেছেন, রাশিয়া একটি ‘জঙ্গি রাষ্ট্র।’ জলাধারে কোনো সামরিক কিছু নেই। এটির ওপর কয়েক লাখ মানুষ সুপেয় পানির জন্য নির্ভর করে। সেখান থেকে সাধারণ মানুষদের সরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে ওই অঞ্চলের সামরিক প্রশাসক ওলেক্সান্ডার ভিকুল এক বিবৃতিতে বলেন, অপ্রয়োজনীয় ঝুঁকি এড়াতে, আমি ওখানকার নির্দিষ্ট কিছু এলাকার মানুষদের সরে যাওয়ার বিনীত আহ্বান জানাচ্ছি। টেলিগ্রাম পোস্টে এ কর্মকর্তা জানিয়েছে, ১১২টি বাড়ি বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। অন্য আরেকজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এ হামলায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। এদিকে জলাধারের বাঁধে কেন রুশ সেনারা হামলা চালিয়েছে সেটি জানা যায়নি। তবে অনেকে ধারণা করছেন পানির ব্যবস্থায় বিঘ্ন ঘটাতে এ হামলা হতে পারে। সূত্র: আল জাজিরা

নিউজ ডেস্ক: ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কির জন্মস্থান ক্রাইভি রিহ-তে অবস্থিত একটি জলাধারের বাঁধে মিসাইল হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। এতে সেখানে বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এই হামলার পর সেখানে থাকা সাধারণ মানুষকে সরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ইউক্রেনের কর্মকর্তারা।

ইউক্রেনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সেখানে আটটি ক্রুস মিসাইল ছুড়েছে রুশ বাহিনী।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকালে এক ভিডিও বার্তায় জলাধারের বাঁধে হামলার ব্যাপারে  প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কি বলেছেন, রাশিয়া একটি ‘জঙ্গি রাষ্ট্র।’ জলাধারে কোনো সামরিক কিছু নেই। এটির ওপর কয়েক লাখ মানুষ সুপেয় পানির জন্য নির্ভর করে।

সেখান থেকে সাধারণ মানুষদের সরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে ওই অঞ্চলের সামরিক প্রশাসক ওলেক্সান্ডার ভিকুল এক বিবৃতিতে বলেন, অপ্রয়োজনীয় ঝুঁকি এড়াতে, আমি ওখানকার নির্দিষ্ট কিছু এলাকার মানুষদের সরে যাওয়ার বিনীত আহ্বান জানাচ্ছি।

টেলিগ্রাম পোস্টে এ কর্মকর্তা জানিয়েছে, ১১২টি বাড়ি বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে।

অন্য আরেকজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এ হামলায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

এদিকে জলাধারের বাঁধে কেন রুশ সেনারা হামলা চালিয়েছে সেটি জানা যায়নি। তবে অনেকে ধারণা করছেন পানির ব্যবস্থায় বিঘ্ন ঘটাতে এ হামলা হতে পারে।

সূত্র: আল জাজিরা

সূত্র: যুগান্তর