সাকিবের চেয়েও কম রান দেওয়া বোলার নেই বিশ্বকাপ স্কোয়াডে!

4
বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণার পর এ নিয়ে চলছে বির্তক, সমালোচনা। অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে কেন বাদ দেওয়া হলো, ১০৪.২২ স্ট্রাইক রেটের নাজমুল হোসেন শান্ত কীভাবে সুযোগ পেলেন, মাহমুদউল্লাহকে বাদ দিলে কেন তিন দিনের ক্যাম্পে তাকে অনুশীলন করানো হলো— এমন সব আলোচনা ও প্রশ্নের শেষ হচ্ছে না। এছাড়া অফ স্পিনার শেখ মাহেদী হাসানকে মূল স্কোয়াডে না রাখা নিয়েও টুকটাক সমালোচনা চলছে। চারজনের স্ট্যান্ডবাই হিসেবে রাখা হয়েছে মাহেদীকে। মূলত অলরাউন্ডিং পারফরম্যান্স বিবেচনায় জাতীয় দলে কার্যকরি হয়ে ওঠেছেন একজন ক্রিকেটার মাহেদী। বাদ পড়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ বা হতাশার কোনো প্রতিক্রিয়া দেখাননি এ স্পিন-অলরাউন্ডার। তবে নিজের কৃতিত্বের কথা জানিয়ে পোস্ট দিয়ে দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে দোয়া চেয়েছেন ২৭ বছর বয়সি এ অলরাউন্ডার। মাহেদী জানালেন, ২০২১ সালের জুলাই থেকে এ পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সবচেয়ে কম ইকনোমি রেটে রান দেওয়া স্পিনার তিনি। এই পরিসংখ্যানে সাকিব আল হাসান ও অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডাম জাম্পার মত বোলারকে পেছনে ফেলেছেন তিনি। যেখানে মাহেদীর ইকনমি রেট ৫.৭০ সেখানে সাকিবের ৬.৩০। আইসিসির নতুন প্রকাশিত র‌্যাংকিংয়ে দেখা যাচ্ছে, টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের মধ্যে সবচেয়ে সেরা বোলার এ মুহূর্তে মাহেদি হাসান। তার থেকে চার ধাপ পেছনে সাকিব আল হাসান। মাহেদী রয়েছেন ১৫ নম্বরে আর সাকিব ১৯ নম্বরে। বিশ্বকাপ দল ঘোষণার পর এই দুটি কৃতিত্বের কথা ছবিসহ নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে পোস্ট করে মাহেদী হাসান লিখেছেন, ‘সবকিছুর জন্যই আলহামদুলিল্লাহ। ইনশাআল্লাহ, আমি খুব দ্রুতই আরো শক্তিশালী হয়ে ফিরে আসব। আমাকে আপনাদের দোয়ায় সামিল করবেন।’ প্রসঙ্গত, শেখ মাহেদী এখন পর্যন্ত মাত্র ৩টি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেলেছেন। নিয়েছেন দুটি উইকেট। তবে টি-টোয়েন্টিতে তার ক্যারিয়ার তুলনামূলক সমৃদ্ধ। এখন পর্যন্ত ৩৮ টি-টোয়েন্টিতে ৬.৫৬ ইকনমিতে মাহাদি উইকেট শিকার করেছেন ৩০টি। যে কোনো তারকার জন্য এ পারফরর্মান্স চোখ ধাঁধাঁনো। টি-টোয়েন্টিতে রানও করেছেন ২৫৯।

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণার পর এ নিয়ে চলছে বির্তক, সমালোচনা।

অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে কেন বাদ দেওয়া হলো, ১০৪.২২ স্ট্রাইক রেটের নাজমুল হোসেন শান্ত কীভাবে সুযোগ পেলেন, মাহমুদউল্লাহকে বাদ দিলে কেন তিন দিনের ক্যাম্পে তাকে অনুশীলন করানো হলো— এমন সব আলোচনা ও প্রশ্নের শেষ হচ্ছে না।

এছাড়া অফ স্পিনার শেখ মাহেদী হাসানকে মূল স্কোয়াডে না রাখা নিয়েও টুকটাক সমালোচনা চলছে। চারজনের স্ট্যান্ডবাই হিসেবে রাখা হয়েছে মাহেদীকে।

মূলত অলরাউন্ডিং পারফরম্যান্স বিবেচনায় জাতীয় দলে কার্যকরি হয়ে ওঠেছেন একজন ক্রিকেটার মাহেদী।

বাদ পড়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ বা হতাশার কোনো প্রতিক্রিয়া দেখাননি এ স্পিন-অলরাউন্ডার। তবে নিজের কৃতিত্বের কথা জানিয়ে পোস্ট দিয়ে দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে দোয়া চেয়েছেন ২৭ বছর বয়সি এ অলরাউন্ডার।

মাহেদী জানালেন, ২০২১ সালের জুলাই থেকে এ পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সবচেয়ে কম ইকনোমি রেটে রান দেওয়া স্পিনার তিনি। এই পরিসংখ্যানে সাকিব আল হাসান ও অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডাম জাম্পার মত বোলারকে পেছনে ফেলেছেন তিনি। যেখানে মাহেদীর ইকনমি রেট ৫.৭০ সেখানে সাকিবের ৬.৩০।

আইসিসির নতুন প্রকাশিত র‌্যাংকিংয়ে দেখা যাচ্ছে, টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের মধ্যে সবচেয়ে সেরা বোলার এ মুহূর্তে মাহেদি হাসান।  তার থেকে চার ধাপ পেছনে সাকিব আল হাসান।  মাহেদী রয়েছেন ১৫ নম্বরে আর সাকিব ১৯ নম্বরে।

 

বিশ্বকাপ দল ঘোষণার পর এই দুটি কৃতিত্বের কথা ছবিসহ নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে পোস্ট করে মাহেদী হাসান লিখেছেন, ‘সবকিছুর জন্যই আলহামদুলিল্লাহ। ইনশাআল্লাহ, আমি খুব দ্রুতই আরো শক্তিশালী হয়ে ফিরে আসব। আমাকে আপনাদের দোয়ায় সামিল করবেন।’

প্রসঙ্গত, শেখ মাহেদী এখন পর্যন্ত মাত্র ৩টি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেলেছেন। নিয়েছেন দুটি উইকেট।  তবে টি-টোয়েন্টিতে তার ক্যারিয়ার তুলনামূলক সমৃদ্ধ।  এখন পর্যন্ত ৩৮ টি-টোয়েন্টিতে ৬.৫৬ ইকনমিতে মাহাদি উইকেট শিকার করেছেন ৩০টি।  যে কোনো তারকার জন্য এ পারফরর্মান্স চোখ ধাঁধাঁনো।  টি-টোয়েন্টিতে রানও করেছেন ২৫৯।

সূত্র: যুগান্তর