রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করতে মস্কোয় হামাস নেতা

4
ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের পলিট ব্যুরো প্রধান ইসমাইল হানিয়া শনিবার মস্কো সফরে গেছেন। এ সফরে তিনি রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভসহ দেশটির উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। খবর জেরুজালেম পোস্টের। হামাসের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মস্কো সফরের হানিয়ার সঙ্গে রয়েছেন ফিলিস্তিনের একটি উচ্চপর্যায়ে প্রতিনিধিদল যাতে যুক্ত হবেন হামাসের উপপ্রধান সালেহ আরুরি এবং হামাসের রাজনৈতিক ব্যুরোর সদস্য মুসা আবু মারজুক ও মাহের সালা। হামাসের গণমাধ্যমবিষয়ক প্রধান উপদেষ্টা তাহের আল নুনো স্বাক্ষরিত ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ফিলিস্তিনের চলমান পরিস্থিতি এবং দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক নিয়ে আলোচনার জন্য মস্কোর পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ জানানোর পর এ সফর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ২০২০ সালের মার্চ মাসে ইসমাইল হানিয়া সর্বশেষ মস্কো সফর করেছেন। সেই সময় তিনি ফিলিস্তিনিদের অধিকার রক্ষা এবং মধ্যপ্রাচ্যের চলমান দ্বন্দ্ব নিরসনের নামে ইসরাইলের স্বার্থ রক্ষাকারী কথিত 'ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি' নামের একটি প্রস্তাব রাশিয়া প্রত্যাখ্যান করেছিল। ইসমাইল হানিয়া সেই সময় মস্কোর ওই অবস্থানের জন্য ব্যাপক প্রশংসা করেছিলেন। তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার কথিত ডিল অফ দ্য সেঞ্চুরি প্রকাশ করেন। রাশিয়া সরাসরি ওই প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছিল। ট্রাম্পের ওই প্রস্তাব অনুসারে ফিলিস্তিনের লাখ লাখ শরণার্থী মাতৃভূমিতে ফিরতে পারবে না। এ ছাড়া পবিত্র আল-কুদস শহরকে ইসরাইলের অবিভক্ত রাজধানী এবং পশ্চিমতীরে গড়ে তোলা অবৈধ ইহুদি বসতি এবং জর্দান উপত্যকাকে ইসরাইলের অংশ হিসেবে যুক্ত করার কথা বলা হয়।

নিউজ ডেস্ক: ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের পলিট ব্যুরো প্রধান ইসমাইল হানিয়া শনিবার মস্কো সফরে গেছেন।

এ সফরে তিনি রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভসহ দেশটির উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। খবর জেরুজালেম পোস্টের।

হামাসের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মস্কো সফরের হানিয়ার সঙ্গে রয়েছেন ফিলিস্তিনের একটি উচ্চপর্যায়ে প্রতিনিধিদল যাতে যুক্ত হবেন হামাসের উপপ্রধান সালেহ আরুরি এবং হামাসের রাজনৈতিক ব্যুরোর সদস্য মুসা আবু মারজুক ও মাহের সালা।

হামাসের গণমাধ্যমবিষয়ক প্রধান উপদেষ্টা তাহের আল নুনো স্বাক্ষরিত ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ফিলিস্তিনের চলমান পরিস্থিতি এবং দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক নিয়ে আলোচনার জন্য মস্কোর পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ জানানোর পর এ সফর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

২০২০ সালের মার্চ মাসে ইসমাইল হানিয়া সর্বশেষ মস্কো সফর করেছেন। সেই সময় তিনি ফিলিস্তিনিদের অধিকার রক্ষা এবং মধ্যপ্রাচ্যের চলমান দ্বন্দ্ব নিরসনের নামে ইসরাইলের স্বার্থ রক্ষাকারী কথিত ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’ নামের একটি প্রস্তাব রাশিয়া প্রত্যাখ্যান করেছিল।

ইসমাইল হানিয়া সেই সময় মস্কোর ওই অবস্থানের জন্য ব্যাপক প্রশংসা করেছিলেন। তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার কথিত ডিল অফ দ্য সেঞ্চুরি প্রকাশ করেন।

রাশিয়া সরাসরি ওই প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছিল। ট্রাম্পের ওই প্রস্তাব অনুসারে ফিলিস্তিনের লাখ লাখ শরণার্থী মাতৃভূমিতে ফিরতে পারবে না।

এ ছাড়া পবিত্র আল-কুদস শহরকে ইসরাইলের অবিভক্ত রাজধানী এবং পশ্চিমতীরে গড়ে তোলা অবৈধ ইহুদি বসতি এবং জর্দান উপত্যকাকে ইসরাইলের অংশ হিসেবে যুক্ত করার কথা বলা হয়।

সূত্র: যুগান্তর