আগামী নির্বাচনেও লড়বেন না হিলারি

3
যুক্তরাষ্ট্রে ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না বলে জানিয়েছেন। মঙ্গলবার একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা জানান তিনি। এর আগে ২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজিত হয়েছিলেন তিনি। খবর সিএনএনের। সাক্ষাৎকারে হিলারিকে প্রশ্ন করা হয়, তিনি আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়তে চান কিনা। জবাবে হিলারি বলেন, 'না, না।' নির্বাচন না করলেও আমার পক্ষে যতদূর সম্ভব প্রেসিডেন্টের জন্য আমি সবটাই করব। তবে গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠা করার মাধ্যমে আইনের শাসন বজায় রাখা ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে রক্ষা করা প্রয়োজন। হিলারিকে আবার প্রশ্ন করা হয়, যদি ডোনাল্ড ট্রাম্প আবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন? জবাবে হিলারি বলেন, এই পদের জন্য ট্রাম্প কোনোভাবেই যোগ্য নন এবং তিনি যদি নির্বাচনে লড়াই করেন, তবে তার পরাজয় অনিবার্য। ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পের কাছেই হেরেছিলেন হিলারি। হিলারি বলেন, আগামী নির্বাচনে যদি প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন, তবে তার সমর্থন বাইডেনের দিকেই থাকবে। ২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় বিতর্কে জড়িয়েছিলেন হিলারি।

নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রে ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না বলে জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা জানান তিনি। এর আগে ২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজিত হয়েছিলেন তিনি। খবর সিএনএনের।

সাক্ষাৎকারে হিলারিকে প্রশ্ন করা হয়, তিনি আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়তে চান কিনা। জবাবে হিলারি বলেন, ‘না, না।’ নির্বাচন না করলেও আমার পক্ষে যতদূর সম্ভব প্রেসিডেন্টের জন্য আমি সবটাই করব। তবে গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠা করার মাধ্যমে আইনের শাসন বজায় রাখা ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে রক্ষা করা প্রয়োজন।

হিলারিকে আবার প্রশ্ন করা হয়, যদি ডোনাল্ড ট্রাম্প আবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন? জবাবে হিলারি বলেন, এই পদের জন্য ট্রাম্প কোনোভাবেই যোগ্য নন এবং তিনি যদি নির্বাচনে লড়াই করেন, তবে তার পরাজয় অনিবার্য। ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পের কাছেই হেরেছিলেন হিলারি।

হিলারি বলেন, আগামী নির্বাচনে যদি প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন, তবে তার সমর্থন বাইডেনের দিকেই থাকবে।

২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় বিতর্কে জড়িয়েছিলেন হিলারি।

সূত্র: যুগান্তর