রাশিয়ার কাছ থেকে ৩ এলাকা পুনরুদ্ধারের দাবি জেলেনস্কির

4
ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, রুশ বাহিনীর কাছ থেকে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের দুটি এবং পূর্বাঞ্চলের একটি এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে তার বাহিনী। একই সঙ্গে পূর্বদিকের আরও কিছু এলাকা পুনর্দখলে নেওয়ারও দাবি করেছেন তিনি। খবর রয়টার্সের। রোববার রাতে এক ভিডিওবার্তায় সেনা অভিযানে এ অগ্রগতির কথা বলেন জেলেনস্কি। সম্প্রতি তিনি ঘোষণা করেছিলেন, রুশ সেনাদের নিয়ন্ত্রণে থাকা কয়েকটি অঞ্চল পুনরুদ্ধারে অগ্রসর হচ্ছেন ইউক্রেনীয় সেনারা। পূর্বাঞ্চলীয় দোনেৎস্কের একটি এলাকা স্বাধীন করার জন্য জেলেনস্কি তার বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান। এ ছাড়া পূর্বাঞ্চলীয় লিসিচানস্ক-সিভারস্কে পাহাড়ি কিছু এলাকা এবং দক্ষিণাঞ্চলের দুটি এলাকা স্বাধীন করার জন্যও ধন্যবাদ জানান তিনি। ওই এলাকাগুলো ঠিক কোথায়, তা সুনির্দিষ্ট করে উল্লেখ করেননি জেলেনস্কি। কখন এগুলোর দখল নেওয়া হয়েছে, তাও উল্লেখ করেননি তিনি। জেলেনস্কি শুধু বলেন, রোববার এক বৈঠকে সামরিক কমান্ডার এবং গোয়েন্দাপ্রধানের কাছ থেকে ‘ভালো খবর’ পেয়েছেন তিনি। জেলেনস্কির জ্যেষ্ঠ এক সহযোগী একটি ছবি প্রকাশ করেছেন। সেখানে দেখা যায়, সেনাসদস্যরা একটি গ্রামে ইউক্রেনীয় পতাকা উড়াচ্ছেন। এটিকে দক্ষিণাঞ্চলীয় কিয়েভের একটি গ্রাম বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

নিউজ ডেস্ক: ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, রুশ বাহিনীর কাছ থেকে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের দুটি এবং পূর্বাঞ্চলের একটি এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে তার বাহিনী।

একই সঙ্গে পূর্বদিকের আরও কিছু এলাকা পুনর্দখলে নেওয়ারও দাবি করেছেন তিনি। খবর রয়টার্সের।

রোববার রাতে এক ভিডিওবার্তায় সেনা অভিযানে এ অগ্রগতির কথা বলেন জেলেনস্কি।

সম্প্রতি তিনি ঘোষণা করেছিলেন, রুশ সেনাদের নিয়ন্ত্রণে থাকা কয়েকটি অঞ্চল পুনরুদ্ধারে অগ্রসর হচ্ছেন ইউক্রেনীয় সেনারা।

পূর্বাঞ্চলীয় দোনেৎস্কের একটি এলাকা স্বাধীন করার জন্য জেলেনস্কি তার বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান। এ ছাড়া পূর্বাঞ্চলীয় লিসিচানস্ক-সিভারস্কে পাহাড়ি কিছু এলাকা এবং দক্ষিণাঞ্চলের দুটি এলাকা স্বাধীন করার জন্যও ধন্যবাদ জানান তিনি।

ওই এলাকাগুলো ঠিক কোথায়, তা সুনির্দিষ্ট করে উল্লেখ করেননি জেলেনস্কি। কখন এগুলোর দখল নেওয়া হয়েছে, তাও উল্লেখ করেননি তিনি।

জেলেনস্কি শুধু বলেন, রোববার এক বৈঠকে সামরিক কমান্ডার এবং গোয়েন্দাপ্রধানের কাছ থেকে ‘ভালো খবর’ পেয়েছেন তিনি।

জেলেনস্কির জ্যেষ্ঠ এক সহযোগী একটি ছবি প্রকাশ করেছেন। সেখানে দেখা যায়, সেনাসদস্যরা একটি গ্রামে ইউক্রেনীয় পতাকা উড়াচ্ছেন। এটিকে দক্ষিণাঞ্চলীয় কিয়েভের একটি গ্রাম বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

সূত্র: যুগান্তর