কক্সবাজারের ডিসিকে তলব, আদালত অবমাননার রুল

11
অবৈধ দখল ও স্থাপনা উচ্ছেদসংক্রান্ত উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে শতাধিক দোকান বসানোর অভিযোগে জেলা প্রশাসককে (ডিসি) তলব করেছেন হাইকোর্ট। আদালত অবমানার অভিযোগে এক আবেদনের শুনানির পর বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার রুলসহ এ আদেশ দেন। কক্সবাজারের ডিসি মো. মামুনুর রশীদকে আগামী ১৯ অক্টোবর হাইকোর্টে হাজির হতে বলা হয়েছে আদেশে। এ ছাড়া উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে সমুদ্রসৈকতে দোকান বসানোর অনুমতি দেওয়ায় সংশ্লিষ্ট পাঁচজনের বিরুদ্ধে কেন আদালত অবমাননার অভিযোগ আনা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল দিয়েছেন হাইকোর্ট। কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফোরকান আহমদ, উপ-নগর পরিকল্পনাবিদ মো. তানভীর হাসান রেজাউল, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মামুনুর রশীদ, জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. হাসানুজ্জামান এবং কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমানকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এর আগে গত ৭ ফেব্রুয়ারি আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে সৈকত অবৈধভাবে দোকান বসানোর বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের উকিল নোটিশ পাঠান হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) সভাপতি আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। ২০১১ সালে হাইকোর্টের দেওয়া এক রায়ে সমুদ্রসৈকতে অবৈধ দখল উচ্ছেদের নির্দেশনার কথা বলা হয়েছে ওই নোটিশে।

নিউজ ডেস্ক: অবৈধ দখল ও স্থাপনা উচ্ছেদসংক্রান্ত উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে শতাধিক দোকান বসানোর অভিযোগে জেলা প্রশাসককে (ডিসি) তলব করেছেন হাইকোর্ট।

আদালত অবমানার অভিযোগে এক আবেদনের শুনানির পর বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার রুলসহ এ আদেশ দেন।

কক্সবাজারের ডিসি মো. মামুনুর রশীদকে আগামী ১৯ অক্টোবর হাইকোর্টে হাজির হতে বলা হয়েছে আদেশে।

এ ছাড়া উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে সমুদ্রসৈকতে দোকান বসানোর অনুমতি দেওয়ায় সংশ্লিষ্ট পাঁচজনের বিরুদ্ধে কেন আদালত অবমাননার অভিযোগ আনা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল দিয়েছেন হাইকোর্ট।

কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফোরকান আহমদ, উপ-নগর পরিকল্পনাবিদ মো. তানভীর হাসান রেজাউল, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মামুনুর রশীদ, জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. হাসানুজ্জামান এবং কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমানকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এর আগে গত ৭ ফেব্রুয়ারি আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে সৈকত অবৈধভাবে দোকান বসানোর বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের উকিল নোটিশ পাঠান হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) সভাপতি আইনজীবী মনজিল মোরসেদ।

২০১১ সালে হাইকোর্টের দেওয়া এক রায়ে সমুদ্রসৈকতে অবৈধ দখল উচ্ছেদের নির্দেশনার কথা বলা হয়েছে ওই নোটিশে।

সূত্র: যুগান্তর