প্রথম ছবিতে কত রুপি পেয়েছিলেন আলিয়া?

10
বলিউডের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন হচ্ছেন আলিয়া ভাট। বলিউডের প্রভাবশালী ভাট পরিবারের মেয়ে তিনি। নিজের অভিনয়শৈলী দিয়ে ইতোমধ্যে দর্শকদের মন জয় করেছেন তিনি। মাত্র ১৯ বছর বয়সে আলিয়া ক্যারিয়ার শুরু করেন। এ মুহূর্তে তিনি বলিউডের সর্বোচ্চ আয়কারী নায়িকাদের একজন। ২০১২ সালে করণ জোহরের ‘স্টুডেন্ট অব দি ইয়ার’ ছবি দিয়ে তার অভিনয়জীবন শুরু হয়। ক্যারিয়ারের প্রথম ছবিতে আলিয়ার ঝুলিতে কত রুপি এসেছিল, তা সম্প্রতি তিনি নিজেই ফাঁস করেছেন। সম্প্রতি এক পত্রিকায় দেওয়া সাক্ষাৎকারে আলিয়া বলেন, আমি আমার প্রথম ছবির জন্য ১৫ লাখ টাকার চেক পেয়েছিলাম। এই চেক পাওয়ার পর আমি তা আমার মায়ের (সোনি রাজদান) হাতে তুলে দিয়েছি। আর তখন থেকে তিনিই আমার টাকাপয়সার হিসাব রাখেন। এ বিষয়ে আমি মাথা ঘামাই না। আলিয়া-রণবীরের প্রেমকাহিনি সিনেমাকেও হার মানায়। ক্যাটরিনা-দীপিকার সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করে আলিয়ায় তরী ভিড়িয়েছেন রণবীর কাপুর। বি-টাউনে এই গুঞ্জন ছিল প্লেবয়ের এই প্রেমও টিকবে না। কিন্তু আলিয়া সেটি সত্যি হতে দিলেন না। একেবারে সাত পাকে বেঁধে ফেললেন রণবীরকে। বিয়ের পরও মা-ই আলিয়ার অ্যাকাউন্ট সামলান। এ প্রসঙ্গে এই বলিউড নায়িকা আরও বলেন, আমি জানি না আমার অ্যাকাউন্টে কত টাকা আছে। এটা সত্যি যে আমার অ্যাকাউন্টে অনেক টাকা আছে। কিন্তু কত আছে, তা আমার জানা নেই। আমার টিম সব সময় আমাকে বলে যে আর্থিক বিষয় আমার একটু দেখা উচিত। আমি এখন মা হতে চলেছি, তা-ই এদিকে আমাকে বিশেষ খেয়াল রাখতে হচ্ছে। আর্থিক দিক দেখার মতো সময় কোথায়। তবে আমার হাত থেকে খুব সহজে টাকা বের হয় না। চলতি বছরের এপ্রিল মাসে বিয়ে করেন রণবীর ও আলিয়া। জুন মাসে অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আনেন অভিনেত্রী। তবে সন্তানের অপেক্ষায় কাজ থেমে থাকেনি। স্বামী রণবীরের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে 'ব্রহ্মাস্ত্র'-এর প্রচার করছেন হবু মা।

নিউজ ডেস্ক: বলিউডের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন হচ্ছেন আলিয়া ভাট। বলিউডের প্রভাবশালী ভাট পরিবারের মেয়ে তিনি। নিজের অভিনয়শৈলী দিয়ে ইতোমধ্যে দর্শকদের মন জয় করেছেন তিনি।

মাত্র ১৯ বছর বয়সে আলিয়া ক্যারিয়ার শুরু করেন। এ মুহূর্তে তিনি বলিউডের সর্বোচ্চ আয়কারী নায়িকাদের একজন।

২০১২ সালে করণ জোহরের ‘স্টুডেন্ট অব দি ইয়ার’ ছবি দিয়ে তার অভিনয়জীবন শুরু হয়। ক্যারিয়ারের প্রথম ছবিতে আলিয়ার ঝুলিতে কত রুপি এসেছিল, তা সম্প্রতি তিনি নিজেই ফাঁস করেছেন।

সম্প্রতি এক পত্রিকায় দেওয়া সাক্ষাৎকারে আলিয়া বলেন, আমি আমার প্রথম ছবির জন্য ১৫ লাখ টাকার চেক পেয়েছিলাম। এই চেক পাওয়ার পর আমি তা আমার মায়ের (সোনি রাজদান) হাতে তুলে দিয়েছি। আর তখন থেকে তিনিই আমার টাকাপয়সার হিসাব রাখেন। এ বিষয়ে আমি মাথা ঘামাই না।

আলিয়া-রণবীরের প্রেমকাহিনি সিনেমাকেও হার মানায়। ক্যাটরিনা-দীপিকার সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করে আলিয়ায় তরী ভিড়িয়েছেন রণবীর কাপুর। বি-টাউনে এই গুঞ্জন ছিল প্লেবয়ের এই প্রেমও টিকবে না।

কিন্তু আলিয়া সেটি সত্যি হতে দিলেন না। একেবারে সাত পাকে বেঁধে ফেললেন রণবীরকে।

বিয়ের পরও মা-ই আলিয়ার অ্যাকাউন্ট সামলান। এ প্রসঙ্গে এই বলিউড নায়িকা আরও বলেন, আমি জানি না আমার অ্যাকাউন্টে কত টাকা আছে। এটা সত্যি যে আমার অ্যাকাউন্টে অনেক টাকা আছে। কিন্তু কত আছে, তা আমার জানা নেই। আমার টিম সব সময় আমাকে বলে যে আর্থিক বিষয় আমার একটু দেখা উচিত। আমি এখন মা হতে চলেছি, তা-ই এদিকে আমাকে বিশেষ খেয়াল রাখতে হচ্ছে। আর্থিক দিক দেখার মতো সময় কোথায়। তবে আমার হাত থেকে খুব সহজে টাকা বের হয় না।

চলতি বছরের এপ্রিল মাসে বিয়ে করেন রণবীর ও আলিয়া। জুন মাসে অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আনেন অভিনেত্রী। তবে সন্তানের অপেক্ষায় কাজ থেমে থাকেনি। স্বামী রণবীরের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ‘ব্রহ্মাস্ত্র’-এর প্রচার করছেন হবু মা।

সূত্র: যুগান্তর