এ কথা বলা বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য ব্যর্থতা: সাকিব

11
এশিয়া কাপের আগে সংবাদ সম্মেলনে মুখোমুখি হয়েছেন সাকিব আল হাসান। টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব পাওয়ার পর প্রথমবার আনুষ্ঠানিকভাবে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হলেন সাকিব। সেখানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সাকিব জানালেন, রাতারাতি দলের অবস্থা পরিবর্তন করতে পারবেন না টি-টোয়েন্টি পরামর্শক শ্রীধরন শ্রীরাম। সে জন্য ক্রিকেটারদের এগিয়ে আসতে হবে। টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক অকপটেই স্বীকার করলেন, ক্রিকেটের এই খুদে সংস্করণে ধুঁকছে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে হতে যাওয়া এশিয়া কাপে বাংলাদেশ ভালো করবে কিনা—এমন প্রশ্নে সাকিব বললেন, বাংলাদেশ ভালো করবে বারবার এ কথা বলা বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য এক ধরনের ব্যর্থতা। এই ফরম্যাটে আমাদের দৃঢ়তা নেই। সাকিব বলেন, নতুন কোচ শ্রীরামের সঙ্গে পরামর্শ করেই এশিয়া কাপের পরিকল্পনা করা হবে। তবে রাতারাতি দলের অবস্থা পরিবর্তন করতে পারবেন না তিনি। আমরা ফোর-ফাইভের স্টুডেন্ট না যে, সব শিখিয়ে দিতে হবে। ক্রিকেটারদের এগিয়ে আসতে হবে। এবারের এশিয়া কাপ হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। ২০১৬ ও ২০১৮ সালে বাংলাদেশ দুই আসরে ফাইনাল খেলেছিল। এবার বাংলাদেশ খুব ভালো সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে না। শেষ ১০ ম্যাচে আটটিতেই দল হেরেছে। সাকিবের হাত ধরে বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়াতে পারে কিনা সেটিই দেখার।

নিউজ ডেস্ক: এশিয়া কাপের আগে সংবাদ সম্মেলনে মুখোমুখি হয়েছেন সাকিব আল হাসান। টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব পাওয়ার পর প্রথমবার আনুষ্ঠানিকভাবে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হলেন সাকিব।

সেখানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সাকিব জানালেন, রাতারাতি দলের অবস্থা পরিবর্তন করতে পারবেন না টি-টোয়েন্টি পরামর্শক শ্রীধরন শ্রীরাম। সে জন্য ক্রিকেটারদের এগিয়ে আসতে হবে।

টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক অকপটেই স্বীকার করলেন, ক্রিকেটের এই খুদে সংস্করণে ধুঁকছে বাংলাদেশ।

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে হতে যাওয়া এশিয়া কাপে বাংলাদেশ ভালো করবে কিনা—এমন প্রশ্নে সাকিব বললেন, বাংলাদেশ ভালো করবে বারবার এ কথা বলা বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য এক ধরনের ব্যর্থতা।  এই ফরম্যাটে আমাদের দৃঢ়তা নেই।

সাকিব বলেন, নতুন কোচ শ্রীরামের সঙ্গে পরামর্শ করেই এশিয়া কাপের পরিকল্পনা করা হবে। তবে রাতারাতি দলের অবস্থা পরিবর্তন করতে পারবেন না তিনি। আমরা ফোর-ফাইভের স্টুডেন্ট না যে, সব শিখিয়ে দিতে হবে। ক্রিকেটারদের এগিয়ে আসতে হবে।

এবারের এশিয়া কাপ হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। ২০১৬ ও ২০১৮ সালে বাংলাদেশ দুই আসরে ফাইনাল খেলেছিল। এবার বাংলাদেশ খুব ভালো সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে না। শেষ ১০ ম্যাচে আটটিতেই দল হেরেছে। সাকিবের হাত ধরে বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়াতে পারে কিনা সেটিই দেখার।

সূত্র: যুগান্তর