গৃহকর্মীদের চাকরি বদলানোর সুযোগ দিচ্ছে সৌদি আরব

4
সৌদি আরব এবার শ্রম আইনে বড় পরিবর্তন এনেছে। এর ফলে আগের চাকরিদাতার অনুমতি ছাড়াই অন্য জায়গায় চাকরি করতে পারবেন গৃহকর্মীরা। এটি ওই দেশে কর্মরত নারী কর্মীদের জন্য বড় সুযোগ। সৌদি আরবে গৃহকর্মীদের নির্যাতন ও নিগৃহীত হওয়ার বেশ কিছু ঘটনার কথা গণমাধ্যমে উঠে আসে। খবর সৌদি গেজেটের। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে গৃহকর্মী হিসেবে যারা কাজ করতে দেশটিতে যান, তারা শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতনের শিকার হন। তাদের অধিকাংশই বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ফিলিপাইনসহ এশিয়ার উন্নয়নশীল দেশের দরিদ্র নারী। সৌদির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, শ্রম আইনে কিছু পরিবর্তন এনেছে সৌদি আরব। সাম্প্রতিক শ্রম বিধিমালায়ও পরিবর্তন করেছে। পরিবর্তনের মধ্য পুরনো চাকরিদাতার অনুমতি ছাড়াই অন্য জায়গায় চাকরি নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছে গৃহকর্মীদের। সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ভিশন-২০৩০ আওতায় দেশটির নানা খাতে সংস্কারের নানা উদ্যোগ নিচ্ছেন। শ্রম আইনে পরিবর্তনও এর অংশ। ভিশন-২০৩০ আওতায় সৌদি আরবে নানা সংস্কার চলছে। নারী গাড়ি চালাচ্ছেন, নারীরা সঙ্গী ছাড়া চলাসহ নানা সংস্কারের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে দেশটি।

নিউজ ডেস্ক: সৌদি আরব এবার শ্রম আইনে বড় পরিবর্তন এনেছে। এর ফলে আগের চাকরিদাতার অনুমতি ছাড়াই অন্য জায়গায় চাকরি করতে পারবেন গৃহকর্মীরা। এটি ওই দেশে কর্মরত নারী কর্মীদের জন্য বড় সুযোগ।

সৌদি আরবে গৃহকর্মীদের নির্যাতন ও নিগৃহীত হওয়ার বেশ কিছু ঘটনার কথা গণমাধ্যমে উঠে আসে। খবর সৌদি গেজেটের।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে গৃহকর্মী হিসেবে যারা কাজ করতে দেশটিতে যান, তারা শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতনের শিকার হন। তাদের অধিকাংশই বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ফিলিপাইনসহ এশিয়ার উন্নয়নশীল দেশের দরিদ্র নারী।

সৌদির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, শ্রম আইনে কিছু পরিবর্তন এনেছে সৌদি আরব। সাম্প্রতিক শ্রম বিধিমালায়ও পরিবর্তন করেছে।

পরিবর্তনের মধ্য পুরনো চাকরিদাতার অনুমতি ছাড়াই অন্য জায়গায় চাকরি নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছে গৃহকর্মীদের।

সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ভিশন-২০৩০ আওতায় দেশটির নানা খাতে সংস্কারের নানা উদ্যোগ নিচ্ছেন। শ্রম আইনে পরিবর্তনও এর অংশ।

ভিশন-২০৩০ আওতায় সৌদি আরবে নানা সংস্কার চলছে। নারী গাড়ি চালাচ্ছেন, নারীরা সঙ্গী ছাড়া চলাসহ নানা সংস্কারের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে দেশটি।

সূত্র: যুগান্তর