যুক্তরাষ্ট্রে অপরাজিত সিনেমার প্রিমিয়ার

10
যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটির ম্যানহাটনে ঐতিহ্যবাহী ভিলেজ ইস্ট বাই অ্যাঞ্জেলিকা মুভি থিয়েটারে ‘অপরাজিত’ সিনেমার প্রিমিয়ার অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১০ আগস্ট প্রিমিয়ারে উপস্থিত ছিলেন সিনেমাটির প্রযোজক ফিরদৌসুল হাসান ও বাংলাদেশের চলচ্চিত্র নির্মাতা, অভিনেতা তৌকীর আহমেদ। সিনেমাটি যুক্তরাষ্ট্রে পরিবেশনা করছে বায়োস্কোপ ফিল্মস। কিংবদন্তি চলচ্চিত্রকার সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কলকাতায় ১৩ মে ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল। এটি পরিচালনা করেছেন অনিক দত্ত। সাদাকালো পর্দায় সত্যজিৎ রায়ের জীবনের একটা বিশেষ অংশ এঁকেছেন নির্মাতা। এরই মধ্যে এটি দারুণ সাড়া জাগিয়েছে। সিনেমাটি তৈরি হয়েছে পথের পাঁচালি কীভাবে তৈরি হয়েছে, সত্যজিৎ রায় কীভাবে সিনেমা জগতের সঙ্গে যুক্ত হয়েছিলেন সেসব গল্প নিয়ে। ফ্রেন্ডস কমিউনিকেশনের ব্যানারে ছবিটি যৌথভাবে প্রযোজনা করেছেন ফিরদৌসুল হাসান ও প্রবাল হালদার। বায়োস্কোপ ফিল্মসের সিইও রাজ হামিদ জানান, বাংলা চলচ্চিত্রের ধারায় সত্যজিৎ রায়ের অবদান অসামান্য। এই ছবি শুধু ছবি নয়, বাংলা চলচিত্রের ইতিহাসলিপি বললেও কম বলা হবে। প্রত্যেক বাঙালিকে এই ছবি দেখা উচিত। তিনি আরও জানান, অপরাজিত ছবিটি আগামী ১৯ আগস্ট থেকে আমেরিকার ২০টির অধিক স্টেট এবং প্রায় ৩০টি শহরে প্রদর্শিত হবে। বায়োস্কোপ ফিল্মসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুবনা রশিদ বলেন, সত্যজিৎ রায়ের মতো একজন গুণী নির্মাতাকে তার শতবছর জন্মবার্ষিকীতে বায়োস্কোপ ফিল্মস অপরাজিত ছবির প্রদর্শনের মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানাতে পেরে ভীষণ ভালো লাগছে। এতে সত্যজিৎ রায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন জিতু কমল। এরই মধ্যে জিতু কমলের অভিনয় ও লুক দর্শকের মন ছুঁয়েছে। ছবিতে তার স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সায়নী ঘোষ।

নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটির ম্যানহাটনে ঐতিহ্যবাহী ভিলেজ ইস্ট বাই অ্যাঞ্জেলিকা মুভি থিয়েটারে ‘অপরাজিত’ সিনেমার প্রিমিয়ার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গত ১০ আগস্ট প্রিমিয়ারে উপস্থিত ছিলেন সিনেমাটির প্রযোজক ফিরদৌসুল হাসান ও বাংলাদেশের চলচ্চিত্র নির্মাতা, অভিনেতা তৌকীর আহমেদ। সিনেমাটি যুক্তরাষ্ট্রে পরিবেশনা করছে বায়োস্কোপ ফিল্মস।

কিংবদন্তি চলচ্চিত্রকার সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কলকাতায় ১৩ মে ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল। এটি পরিচালনা করেছেন অনিক দত্ত।

সাদাকালো পর্দায় সত্যজিৎ রায়ের জীবনের একটা বিশেষ অংশ এঁকেছেন নির্মাতা। এরই মধ্যে এটি দারুণ সাড়া জাগিয়েছে। সিনেমাটি তৈরি হয়েছে পথের পাঁচালি কীভাবে তৈরি হয়েছে, সত্যজিৎ রায় কীভাবে সিনেমা জগতের সঙ্গে যুক্ত হয়েছিলেন সেসব গল্প নিয়ে। ফ্রেন্ডস কমিউনিকেশনের ব্যানারে ছবিটি যৌথভাবে প্রযোজনা করেছেন ফিরদৌসুল হাসান ও প্রবাল হালদার।

বায়োস্কোপ ফিল্মসের সিইও রাজ হামিদ জানান, বাংলা চলচ্চিত্রের ধারায় সত্যজিৎ রায়ের অবদান অসামান্য। এই ছবি শুধু ছবি নয়, বাংলা চলচিত্রের ইতিহাসলিপি বললেও কম বলা হবে। প্রত্যেক বাঙালিকে এই ছবি দেখা উচিত।

তিনি আরও জানান, অপরাজিত ছবিটি আগামী ১৯ আগস্ট থেকে আমেরিকার ২০টির অধিক স্টেট এবং প্রায় ৩০টি শহরে প্রদর্শিত হবে। বায়োস্কোপ ফিল্মসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুবনা রশিদ বলেন, সত্যজিৎ রায়ের মতো একজন গুণী নির্মাতাকে তার শতবছর জন্মবার্ষিকীতে বায়োস্কোপ ফিল্মস অপরাজিত ছবির প্রদর্শনের মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানাতে পেরে ভীষণ ভালো লাগছে।

এতে সত্যজিৎ রায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন জিতু কমল। এরই মধ্যে জিতু কমলের অভিনয় ও লুক দর্শকের মন ছুঁয়েছে। ছবিতে তার স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সায়নী ঘোষ।

সূত্র: যুগান্তর