‘লাল সিং চাড্ডা’: আমির খানের বিরুদ্ধে থানায় গুরুতর অভিযোগ

11

নিউজ ডেস্ক: এবার আইনি জটিলতায় পড়তে যাচ্ছে আমির খানের ‘লাল সিং চাড্ডা’। দিল্লি পুলিশের কাছে অভিযোগ জমা পড়েছে অভিনেতার নামে। ছবিতে ভারতীয় সেনাকে অপমান করেছেন আমির— এমন অভিযোগ আইনজীবীর। শুধু তাই নয়, হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের কথাও বলা হয়েছে অভিযোগে।

এ দিকে বক্স অফিসে শুরুটা ভালো হয়নি লাল সিং চাড্ডার। এর মাঝেই নতুন করে বিপদ বাড়ল আমির খানের।

অদ্বৈত চন্দন পরিচালিত এই ছবিতে আমিরের চরিত্র লালকে একটা সময় ভারতীয় সেনা কর্মকর্তা হিসাবে পাওয়া গেছে। জীবনের বিভিন্ন পর্যায়ে একাধিক পেশার সঙ্গে জড়িত থাকে লাল, এমনটাই ওঠে এসেছে ছবিতে। দিল্লির এক আইনজীবী শুক্রবার এই ছবির বিরুদ্ধে দিল্লির পুলিশ কমিশনার সঞ্জয় অরোরার কাছে অভিযোগ জমা দিয়েছেন।

ছবির প্রধান অভিনেতা তথা অন্যতম প্রযোজক আমির ছাড়াও প্যারামাউন্ট পিকচার্স এবং পরিচালক অদ্বৈত চন্দনের নামে অভিযোগ জানানো হয়েছে।

সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আইনজীবী বিনীত জৈন জিন্দালের পক্ষ থেকে এই অভিযোগ আনা হয়েছে। ছবিতে আপত্তিকর দৃশ্য দেখানোর জন্য আমির খানের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়েরের দাবি তুলেছেন আইনজীবী।

অভিযোগে বলা হয়েছে, একজন মানিসকভাবে অসুস্থ এক ব্যক্তি ভারতীয় সেনায় যোগ দেন এবং কার্গিলের যুদ্ধে শামিল হন। এটা কারোর অজানা নয়, কার্গিল যুদ্ধে ভারতীয় সেনার সেরা কর্মকর্তারা অংশ নিয়েছিলেন।

তিনি জানিয়েছেন, ‘কার্গিল যুদ্ধে অংশ নেওয়া সেনা জওয়ানরা যে ভালো করে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ছিল সেটা স্বীকৃত সত্য। কিন্তু, তা দেখানো হয়নি এই ছবিতে। বরং ইচ্ছা করে ভারতীয় সেনার বীরত্ব নষ্টের চেষ্টা করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ছবির এক দৃশ্যে এক পাকিস্তানি সেনা জওয়ান লালকে বলে আমি নামাজ পড়ি। প্রার্থনা করি। লাল, তুমি কেন সেটা করো না?’ জবাবে লাল সিং বলে, ‘আমার মা বলেছেন- পুজোপাঠ ম্যালেরিয়ার মতো। এ থেকেই হিংসা ছড়ায়।’

এই মন্তব্যের মাধ্যমে হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করেছেন আমির, দাবি বিনীত জিন্দালের। দেশের সবার বাক স্বাধীনতা রয়েছে, তবে তার মানে কেউ চাইলেই দেশের সাম্য ও সম্প্রীতি নষ্ট করবে তা হতে পারে না।

আমির ছাড়াও লাল সিং চাড্ডায় অভিনয় করেছেন কারিনা কাপুর খান, মোনা সিং এবং নাগা চৈতন্য। টম হাঙ্কস অভিনীত ‘ফরেস্ট গাম্প’ ছবির অফিসিয়্যাল রিমেক ‘লাল সিং চাড্ডা’।

সূত্র: যুগান্তর