বিগ ব্যাশের ড্রাফটে বাংলাদেশের ৩ ক্রিকেটার

10
বিগ ব্যাশের এবারের আসরের জন্য ১৫৯ জনেরও বেশি বিদেশি ক্রিকেটার নাম লিখিয়েছেন। তবে বিগ ব্যাশের আয়োজকরা বুধবার ৯৮ বিদেশি ক্রিকেটারের নাম প্রকাশ করেছেন। এর মধ্যে বাংলাদেশের তিনজন ক্রিকেটার রয়েছেন। তারা হলেন- দুই পেসার আল আমিন হোসেন ও শফিউল ইসলামের সঙ্গে নাম দিয়েছেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলে আসা রিপন মণ্ডল। আগামী ২৮ আগস্ট বিগ ব্যাশের ড্রাফট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সেদিনই চূড়ান্ত হয়ে যাবে কোনো ক্রিকেটার দল পেয়েছেন জনপ্রিয় এ লিগে। তবে এবারে বিগ ব্যাশের ড্রাফটের নাম লেখানো ১৬৯ খেলোয়াড়ের মধ্যে কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটার নেই। পিসিবি পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের অনাপত্তি পত্র (এনওসি) দিতে অস্বীকার করছে। চুক্তিবদ্ধ বা চুক্তিবদ্ধ নয়—এমন খেলোয়াড়রা আসন্ন বিবিএলে খেলতে চান। আফগানিস্তানের পরিচিত নাম রয়েছে। মোহাম্মদ নবী (মেলবোর্ন রেনেগেডস), মুজিব উর রহমান (ব্রিসবেন হিট) এবং জহির খান (মেলবোর্ন রেনেগেডস) তালিকায় রয়েছেন। সন্দীপ লামিচানে, টম ল্যামনবি এবং উনমুক্ত চাঁদ সবাই ড্রাফটে যোগ দিয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার লেগস্পিনার ইমরান তাহির ব্যক্তিগত কারণে মেলবোর্ন রেনেগেডস থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। ইংলিশ ক্রিকেটার জো ডেনলি ও ড্যান লরেন্স এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের ফিদেল অ্যাডওয়ার্ডসও রয়েছেন। সব মিলিয়ে ১৩ দেশের খেলোয়াড়দের ড্রাফটে যুক্ত করা হয়েছে। কিছু দিন আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী ইঙ্গিত দিয়েছেন, বিপিএল চলার সময় দেশের কোনো ক্রিকেটারকেই বিদেশি কোনো লিগ বা টুর্নামেন্টে খেলার ছাড়পত্র দেওয়া হবে না। সে ক্ষেত্রে দল পেলেও বিগ ব্যাশে খেলা হবে না আল-আমিন, শফিউল ও রিপনদের। এমন শঙ্কার পরও তারা বিগ ব্যাশের ড্রাফট থেকে দল পাবেন কিনা, এখন সেটিই দেখার অপেক্ষা।

নিউজ ডেস্ক: বিগ ব্যাশের এবারের আসরের জন্য ১৫৯ জনেরও বেশি বিদেশি ক্রিকেটার নাম লিখিয়েছেন। তবে বিগ ব্যাশের আয়োজকরা বুধবার ৯৮ বিদেশি ক্রিকেটারের নাম প্রকাশ করেছেন। এর মধ্যে বাংলাদেশের তিনজন ক্রিকেটার রয়েছেন।

তারা হলেন- দুই পেসার আল আমিন হোসেন ও শফিউল ইসলামের সঙ্গে নাম দিয়েছেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলে আসা রিপন মণ্ডল।

আগামী ২৮ আগস্ট বিগ ব্যাশের ড্রাফট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সেদিনই চূড়ান্ত হয়ে যাবে কোনো ক্রিকেটার দল পেয়েছেন জনপ্রিয় এ লিগে।

তবে এবারে বিগ ব্যাশের ড্রাফটের নাম লেখানো ১৬৯ খেলোয়াড়ের মধ্যে কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটার নেই। পিসিবি পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের অনাপত্তি পত্র (এনওসি) দিতে অস্বীকার করছে। চুক্তিবদ্ধ বা চুক্তিবদ্ধ নয়—এমন খেলোয়াড়রা আসন্ন বিবিএলে খেলতে চান।

আফগানিস্তানের পরিচিত নাম রয়েছে। মোহাম্মদ নবী (মেলবোর্ন রেনেগেডস), মুজিব উর রহমান (ব্রিসবেন হিট) এবং জহির খান (মেলবোর্ন রেনেগেডস) তালিকায় রয়েছেন।

সন্দীপ লামিচানে, টম ল্যামনবি এবং উনমুক্ত চাঁদ সবাই ড্রাফটে যোগ দিয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার লেগস্পিনার ইমরান তাহির ব্যক্তিগত কারণে মেলবোর্ন রেনেগেডস থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

ইংলিশ ক্রিকেটার জো ডেনলি ও ড্যান লরেন্স এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের ফিদেল অ্যাডওয়ার্ডসও রয়েছেন। সব মিলিয়ে ১৩ দেশের খেলোয়াড়দের ড্রাফটে যুক্ত করা হয়েছে।

কিছু দিন আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী ইঙ্গিত দিয়েছেন, বিপিএল চলার সময় দেশের কোনো ক্রিকেটারকেই বিদেশি কোনো লিগ বা টুর্নামেন্টে খেলার ছাড়পত্র দেওয়া হবে না। সে ক্ষেত্রে দল পেলেও বিগ ব্যাশে খেলা হবে না আল-আমিন, শফিউল ও রিপনদের। এমন শঙ্কার পরও তারা বিগ ব্যাশের ড্রাফট থেকে দল পাবেন কিনা, এখন সেটিই দেখার অপেক্ষা।

সূত্র: যুগান্তর