বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে অনেক বেশি মাতামাতি হয়: মিঠুন

9
ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের অধিনায়ক করা হয়েছে জাতীয় দলের এক সময়ের মিডলঅর্ডার ব্যাটার মোহাম্মদ মিঠুনকে। সফরের চারদিন ও একদিনের দুই ফরম্যাটের দলকেই নেতৃত্ব দেবেন মিঠুন। তার নেতৃত্বে আগামীকাল শুক্রবার উইন্ডিজের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বে দল। তার আগে আজ বৃহস্পতিবার মিরপুরে সংবাদ সম্মলনে কথা বলেছেন মিঠুন। প্রসঙ্গ ওঠে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার বিষয়ে এবং এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনা আর তোপের মুখে পড়ার অভিজ্ঞতার বিষয়টি। জবাবে মিঠুন জানালেন, বাংলাদেশের ক্রিকেট সমালোচনাটা স্বাভাবিক বিষয়। এই চাপ সামলাতে না পারলে ক্রিকেট খেলতে পারতেন না। শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মিঠুন বলেন, ‘বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে অনেক বেশি মাতামাতি হয়। এগুলো সামলানোর মতো চাপ না থাকলে আমি ক্রিকেট খেলতে পারব না। সেটা সামলানোর মতো মানসিক দৃঢ়তা থাকতে হবে। এজন্য আমি যথেষ্ট সময় পেয়েছি। সময় পেয়ে ক্রিকেটে ফিরেছি, ক্রিকেট খেলছি। কোনদিকে কী হচ্ছে তা আমার ভাববার ব্যাপার না, ভাবিও না।’ আগামী ৪ আগস্ট থেকে শুরু হবে প্রথম চারদিনের ম্যাচ। ১০ আগস্ট থেকে হবে দ্বিতীয় চার দিনের ম্যাচ। একদিনের ম্যাচ তিনটি হবে ১৬, ১৮ ও ২০ আগস্ট। সফরের সবকটি ম্যাচের ভেন্যুই সেই সেন্ট লুসিয়া। চার দিনের ম্যাচের জন্য ঘোষিত স্কোয়াড সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান, মাহমুদুল হাসান জয়, জাকির হাসান, মোহাম্মদ মিঠুন (অধিনায়ক), ফজলে রাব্বি মাহমুদ, শাহাদাত হোসেন দীপু, জাকের আলি অনিক, নাইম হাসান, তানভির ইসলাম, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, রেজাউর রহমান রাজা, মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ, মোহাম্মদ মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী ও মোহাম্মদ এনামুল হক। এক দিনের ম্যাচের জন্য ঘোষিত স্কোয়াড সৌম্য সরকার, সাইফ হাসান, নাইম শেখ, মোহাম্মদ মিঠুন (অধিনায়ক), মাহমুদুল হাসান জয়, জাকির হাসান, শাহাদাত হোসেন দীপু, জাকের আলি অনিক, সাব্বির রহমান, নাইম হাসান, রাকিবুল হাসান, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, রেজাউর রহমান রাজা, মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ ও মোহাম্মদ মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী।

নিউজ ডেস্ক: ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের অধিনায়ক করা হয়েছে জাতীয় দলের এক সময়ের মিডলঅর্ডার ব্যাটার মোহাম্মদ মিঠুনকে।

সফরের চারদিন ও একদিনের দুই ফরম্যাটের দলকেই নেতৃত্ব দেবেন মিঠুন। তার নেতৃত্বে আগামীকাল শুক্রবার উইন্ডিজের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বে দল।

তার আগে আজ বৃহস্পতিবার মিরপুরে সংবাদ সম্মলনে কথা বলেছেন মিঠুন।

প্রসঙ্গ ওঠে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার বিষয়ে এবং এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনা আর তোপের মুখে পড়ার অভিজ্ঞতার বিষয়টি।

জবাবে মিঠুন জানালেন, বাংলাদেশের ক্রিকেট সমালোচনাটা স্বাভাবিক বিষয়। এই চাপ সামলাতে না পারলে ক্রিকেট খেলতে পারতেন না।

শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মিঠুন বলেন, ‘বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে অনেক বেশি মাতামাতি হয়। এগুলো সামলানোর মতো চাপ না থাকলে আমি ক্রিকেট খেলতে পারব না। সেটা সামলানোর মতো মানসিক দৃঢ়তা থাকতে হবে। এজন্য আমি যথেষ্ট সময় পেয়েছি। সময় পেয়ে ক্রিকেটে ফিরেছি, ক্রিকেট খেলছি। কোনদিকে কী হচ্ছে তা আমার ভাববার ব্যাপার না, ভাবিও না।’

আগামী ৪ আগস্ট থেকে শুরু হবে প্রথম চারদিনের ম্যাচ।  ১০ আগস্ট থেকে হবে দ্বিতীয় চার দিনের ম্যাচ।  একদিনের ম্যাচ তিনটি হবে ১৬, ১৮ ও ২০ আগস্ট।  সফরের সবকটি ম্যাচের ভেন্যুই সেই সেন্ট লুসিয়া।

চার দিনের ম্যাচের জন্য ঘোষিত স্কোয়াড

সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান, মাহমুদুল হাসান জয়, জাকির হাসান, মোহাম্মদ মিঠুন (অধিনায়ক), ফজলে রাব্বি মাহমুদ, শাহাদাত হোসেন দীপু, জাকের আলি অনিক, নাইম হাসান, তানভির ইসলাম, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, রেজাউর রহমান রাজা, মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ, মোহাম্মদ মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী ও মোহাম্মদ এনামুল হক।

এক দিনের ম্যাচের জন্য ঘোষিত স্কোয়াড

সৌম্য সরকার, সাইফ হাসান, নাইম শেখ, মোহাম্মদ মিঠুন (অধিনায়ক), মাহমুদুল হাসান জয়, জাকির হাসান, শাহাদাত হোসেন দীপু, জাকের আলি অনিক, সাব্বির রহমান, নাইম হাসান, রাকিবুল হাসান, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, রেজাউর রহমান রাজা, মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ ও মোহাম্মদ মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী।

সূত্র: যুগান্তর