ফকির আলমগীরের সঙ্গে সেই স্মৃতি

6
গত বছরের জুলাই মাসে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান একাত্তরের কণ্ঠযোদ্ধা, গণসঙ্গীতশিল্পী ফকির আলমগীর। ১৯৯৯ সালে একুশে পদকে ভূষিত হয়েছিলেন তিনি। তার কণ্ঠের ‘ও সখিনা গেছোস কী না ভুইলা আমারে’ গানটি এখনো অনেক জনপ্রিয়। এখনো দর্শকের মুখে মুখে শোনা যায় এই গান। গানটি লিখেছিলেন আলতাফ আলী হাসু, সুর করেছিলেন ফকির আলমগীর। সাংবাদিক অভি মঈনুদ্দীনের আহ্বানে ২০১৪ সালের ৩০ জানুয়ারি রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে একটি ফটোসেশনে অংশ নিয়েছিলেন ফকির আলমগীর। সেই সময় একই আয়োজনে আরো অংশ নিয়েছিলেন গীতিকার, সুরকার, সঙ্গীতশিল্পী লুৎফর হাসান, লালন কন্যা বিউটি, সঙ্গীতশিল্পী পুতুল ও লোপা হোসেইন। ফটোসেশনে এসেই তাদের সঙ্গে আড্ডায় মেতে উঠেছিলেন ফকির আলমগীর। সেই আড্ডারই স্মৃতি এই ছবিটি। ছবিটি তুলেছিলেন আরিফ আহমেদ। আগামী ২৩ জুলাই ফকির আলমগীরের মৃত্যুর এক বছর হতে যাচ্ছে।

নিউজ ডেস্ক: গত বছরের জুলাই মাসে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান একাত্তরের কণ্ঠযোদ্ধা, গণসঙ্গীতশিল্পী ফকির আলমগীর।

১৯৯৯ সালে একুশে পদকে ভূষিত হয়েছিলেন তিনি। তার কণ্ঠের ‘ও সখিনা গেছোস কী না ভুইলা আমারে’ গানটি এখনো অনেক জনপ্রিয়। এখনো দর্শকের মুখে মুখে শোনা যায় এই গান। গানটি লিখেছিলেন আলতাফ আলী হাসু, সুর করেছিলেন ফকির আলমগীর।

সাংবাদিক অভি মঈনুদ্দীনের আহ্বানে ২০১৪ সালের ৩০ জানুয়ারি রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে একটি ফটোসেশনে অংশ নিয়েছিলেন ফকির আলমগীর।

সেই সময় একই আয়োজনে আরো অংশ নিয়েছিলেন গীতিকার, সুরকার, সঙ্গীতশিল্পী লুৎফর হাসান, লালন কন্যা বিউটি, সঙ্গীতশিল্পী পুতুল ও লোপা হোসেইন। ফটোসেশনে এসেই তাদের সঙ্গে আড্ডায় মেতে উঠেছিলেন ফকির আলমগীর।

সেই আড্ডারই স্মৃতি এই ছবিটি। ছবিটি তুলেছিলেন আরিফ আহমেদ। আগামী ২৩ জুলাই ফকির আলমগীরের মৃত্যুর এক বছর হতে যাচ্ছে।

সূত্র: যুগান্তর