লন্ডন থেকে দেশের পথে গাফফার চৌধুরীর লাশ

4
দেশবরেণ্য সাংবাদিক, লেখক, কলামিস্ট ও একুশের অমর গানের রচয়িতা আবদুল গাফফার চৌধুরীর মরদেহ আজ দেশে আসছে। বাংলাদেশ হাইকমিশন লন্ডনের তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে শনিবার দুপুরে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে লাশ এসে পৌঁছাবে। সেখানে সরকারের পক্ষ থেকে তার লাশ গ্রহণ করবেন মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ১২টার দিকে গাফ্‌ফার চৌধুরীর মরদেহ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে (বিজি ২০২) ফ্লাইটে দেশের উদ্দেশে রওনা করেছে বলে এক বার্তায় জানায় লন্ডনের বাংলাদেশ হাইকমিশন। গাফ্‌ফার চৌধুরীর মরদেহ বিমানে তোলার সময় যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশন সাইদা মুনা তাসনিম হিথ্রো এয়ারপোর্টে উপস্থিত ছিলেন। শুক্রবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। লাশ নিয়ে যাওয়া হবে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার। সেখানে বেলা ১টা থেকে ৩টা পর্যন্ত গার্ড অব অনার ও সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য লাশ রাখা হবে। সাড়ে ৩টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদে তার জানাজা হবে। বিকাল ৪টায় গাফফার চৌধুরীর লাশ আনা হবে তার প্রিয় কর্মস্থল জাতীয় প্রেসক্লাবে। সেখান থেকে সাড়ে ৪টায় মিরপুরের শহিদ বুদ্দিজীবী কবরস্থানে তার লাশ নিয়ে যাওয়া হবে। সাড়ে ৫টায় দাফন হবে। আবদুল গাফফার চৌধুরী ১৯ মে লন্ডনের একটি হাসপাতালে মারা যান।

নিউজ ডেস্ক: দেশবরেণ্য সাংবাদিক, লেখক, কলামিস্ট ও একুশের অমর গানের রচয়িতা আবদুল গাফফার চৌধুরীর মরদেহ আজ দেশে আসছে।

বাংলাদেশ হাইকমিশন লন্ডনের তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে শনিবার দুপুরে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে লাশ এসে পৌঁছাবে। সেখানে সরকারের পক্ষ থেকে তার লাশ গ্রহণ করবেন মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ১২টার দিকে গাফ্‌ফার চৌধুরীর মরদেহ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে (বিজি ২০২) ফ্লাইটে দেশের উদ্দেশে রওনা করেছে বলে এক বার্তায় জানায় লন্ডনের বাংলাদেশ হাইকমিশন।

গাফ্‌ফার চৌধুরীর মরদেহ বিমানে তোলার সময় যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশন সাইদা মুনা তাসনিম হিথ্রো এয়ারপোর্টে উপস্থিত ছিলেন।

শুক্রবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

লাশ নিয়ে যাওয়া হবে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার। সেখানে বেলা ১টা থেকে ৩টা পর্যন্ত গার্ড অব অনার ও সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য লাশ রাখা হবে। সাড়ে ৩টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদে তার জানাজা হবে। বিকাল ৪টায় গাফফার চৌধুরীর লাশ আনা হবে তার প্রিয় কর্মস্থল জাতীয় প্রেসক্লাবে।

সেখান থেকে সাড়ে ৪টায় মিরপুরের শহিদ বুদ্দিজীবী কবরস্থানে তার লাশ নিয়ে যাওয়া হবে। সাড়ে ৫টায় দাফন হবে।

আবদুল গাফফার চৌধুরী ১৯ মে লন্ডনের একটি হাসপাতালে মারা যান।

সূত্র: যুগান্তর