শোয়েবকে অপমানের পর ক্ষতিপূরণও চাইছে টিভি চ্যানেল!

12

নিউজ ডেস্ক: বিশ্বকাপের মাঝে পাকিস্তানের একটি টিভি চ্যানেলে টক শোতে গিয়েছিলেন স্পিডস্টার শোয়েব আখতার। লাইভ সেই অনুষ্ঠানে উপস্থাপক তাকে রীতমতো অপমান করেন। তাকে অনুষ্ঠান ছেড়ে বেরিয়ে যেতে বলা হয়। চরম বিব্রত হয়ে টক শো ছেড়ে বেড়িয়ে যান শোয়েব। এরপর বিষয়টি নিয়ে সোশ্যাল সাইটে তোলপাড় শুরু হয়। এজন্য সেই উপস্থাপক তো ক্ষমা চান নি, বরং শোয়েবের কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে!

শারজায় নিউজিল্যান্ড-পাকিস্তান ম্যাচের সময় পাকিস্তানের ন্যাশানাল চ্যানেলে চলছিল সেই লাইভ শো। সেই শোতে আরও উপস্থিত ছিলেন স্যার ভিভ রিচার্ডস এবং ডেভিড গাওয়ারের সঙ্গে অন্যান্য অতিথিরা। পাকিস্তানি ফাস্ট বোলার হারিস রউফ ও শাহিন শাহ আফ্রিদির মধ্যে কাকে নিয়ে আলোচনা করা হবে- এ বিষয়ে উপস্থাপক ডঃ নওমান নিয়াজ আর শোয়েব ঝামেলায় জড়ান। একপর্যায়ে নিয়াজ বলেন, ‘আপনি অতি চালাক এবং অভদ্রের মতো আচরণ করছেন। আপনার উচিত এই অনুষ্ঠান ছেড়ে চলে যাওয়া।’

শোয়েব তবু অনুষ্ঠানে ছিলেন। অনুষ্ঠানের একপর্যায়ে তার সঙ্গে ওই আচরণের জন্য নিয়াজকে দুঃখ প্রকাশ করতে বলেন শোয়েব। কিন্তু নিয়াজ সেদিকে ভ্রুক্ষেপ করেননি। শোয়েবও সবার কাছে ক্ষমা চেয়ে অনুষ্ঠান ত্যাগ করেন। অনুষ্ঠানটি আবার শুরু হলে শোয়েব শোয়েব বলেন, ‘জাতীয় টিভিতে আমার সাথে যেভাবে আচরণ করা হয়েছে, আমি মনে করি না যে আমার এই অনুষ্ঠানের অংশ হওয়া উচিত এবং আমি পিটিভি থেকে পদত্যাগ করছি এবং সেখান থেকে চলে যাচ্ছি।’

এরপর পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও শোয়েবকে এভাবে অপমান করার নিন্দা করেন। কিন্তু উপস্থাপক নিয়াজ এতকিছুতেও দমে যাননি। তিনি দম্ভ নিয়েই বলেন, ‘শোয়েবের সঙ্গে চুক্তি ছিল তিনি অন্য কোথাও টক শো করবেন না। মানুষের ধারণা, আমি শুধুই একজন উপস্থাপক; তারা ভুলে যায়, আমিই তার বেতন দেই, কারণ আমি চ্যানেলের প্রধান।’ এরপর শোয়েবের বিরুদ্ধে সেই টিভি চ্যানেল রিকভারি নোটিশ পাঠিয়েছে। সেইসঙ্গে ক্ষতিপূরণ হিসেবে ১০ কোটি ৩৩ লাখ রুপি চেয়েছে পিটিভি।

https://www.kalerkantho.com/