হাটহাজারীসহ চট্টগ্রামের ৪ উপজেলায় বিজিবি মোতায়েন

0
92

নিউজ ডেস্ক: হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর নামাজে জানাজা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে চট্টগ্রামের চার উপজেলায় ১০ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। আজ শনিবার সকাল থেকে জেলার হাটহাজারী, পটিয়া, রাঙ্গুনিয়া এবং ফটিকছড়িতে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বিজিবি সদস্যরা আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করছেন। চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ড. বদিউল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর মৃত্যু পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ ও তার জানাজা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে শনিবার সকাল থেকে চট্টগ্রামে ১০ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর মধ্যে হাটহাজারীতে চার প্লাটুন, পটিয়ায় দুই, রাঙ্গুনিয়ায় দুই এবং ফটিকছড়িতে দুই প্লাটুন বিজিবি সদস্য মোতায়েন থাকবে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সহায়তা করবে।

এর আগে গতকাল শুক্রবার রাতে হাটহাজারী, পটিয়া, রাঙ্গুনিয়া ও ফটিকছড়ি উপজেলায় বিজিবি মোতায়েন চেয়ে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসকের দায়িত্বে থাকা স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক ইয়াসমিন পারভিন তিবরীজি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব বরাবর চিঠি দেন। চিঠিতে হাটহাজারী উপজেলার জন্য চার প্লাটুন, বাকি তিন উপজেলার জন্য দুই প্লাটুন করে বিজিবি চাওয়া হয়।

এ ছাড়া আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সহায়তার জন্য সাতজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে অপর এক আদেশের মাধ্যমে। হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রুহুল আমিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে শনিবার সকাল থেকে বিজিবি মাঠে থাকবে। এ ছাড়া হাটহাজারীতে চারজন ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্বে থাকবেন। অপর তিন উপজেলায় তিন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকার গেন্ডারিয়ার আজগর আলী হাসপাতালে মারা যান শাহ আহমদ শফী, যিনি দীর্ঘদিন হাটহাজারী দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম মাদ্রাসার মহাপরিচালক ছিলেন। মাদ্রাসার একদল শিক্ষার্থীর বিক্ষোভের মুখে বৃহস্পতিবার রাতে ওই মাদ্রাসার মহাপরিচালকের পদ থেকে সরে দাঁড়ান আহমদ শফী।

পরে গুরুতর অসুস্থ শফীকে গভীর রাতেই চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার বিকেলে তাকে হেলিকপ্টারে করে ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়। তার মরদেহ চট্টগ্রাম নিয়ে যাওয়া হচ্ছে এবং শনিবার বাদ জোহর জানাজা শেষে হাটহাজারী মাদ্রাসার নিজস্ব কবরস্থানে তার দাফন করার কথা রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here