আমিও বলিউডের নোংরা রাজনীতির শিকার : অভয়

28

নিউজ ডেস্ক: সুশান্তের মৃত্যুর পর অনেকে মুখ খুলেছেন বলিউডের স্বজনপোষণ বা পক্ষপাতিত্ব নিয়ে। এবার এই তালিকায় উঠে এলেন অভিনেতা অভয় দেওল। তার অভিনয় দক্ষতা নিয়ে কোনো কথা হবে না। কিন্তু তিনি যেন বলিউডের বাহিরে চলে গেছেন। এবার তার কথায় উঠে এল সেই একই আক্ষেপের কথা।

ভারতের একটি গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলিউডে স্বজনপোষণের বিষয়ে কথা বলেন বলিউডের এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা সানি দেওল’র এই ছোট ভাই। তিনি নিজেও বলিউডের এই নোংরা রাজনীতির শিকার হয়েছেন বলে মন্তব্য করেন। এমন খবর প্রকাশ করেছে নিউজ এইট্টিন।

এ বিষয়ে অভয় দেওল বলেন, ‘এই সব খারাপ চর্চা এমনভাবে বলিউডের সঙ্গে যুক্ত যে, সকলেই জানেন এই নোংরামো করলে সহজেই পার পেয়ে যাব, কোনো শাস্তি হবে না। তাই সবাই নির্লজ্জের মতো এই ধরণের চর্চা চালিয়ে যাচ্ছে।’

সুশান্তকে ব্যক্তিগতভাবে চিনলেও অভয় বলেন, ‘ওর সমস্যা আমি বুঝতে পারছি। কারণ একই ভাবে আমিও শিকার।’

তিনি আরো বলেন, ‘সুশান্তের মৃত্যুর পর নয়। আমি এর আগেও বলেছি বলিউডের বৈষম্যের বিষয়। কিন্তু খারাপ লাগে এই ভেবে যে, একজনের মৃত্যুতে সকলের টনক নড়ল। তবে আমি খুশি সকলে এই নিয়ে কথা বলছেন। পরিবর্তনের কথা হচ্ছে। শুধু বহিরাগতদের জন্য নয়, যারা ইন্ডাস্ট্রির নিজের, তাদের ওপর চলা মানসিক অত্যাচার বন্ধ হোক, এটাই চাই।’

প্রসঙ্গত, বলিউডে বড় বড় তারকাদের সন্তানদের বাড়বাড়ন্ত বা কাজ পাইয়ের দেয়ার জন্য বিশেষ সুবিধা রয়েছে। সুশান্তের মৃত্যু যেন সেই নোংরা দিকগুলিকে আরো স্পষ্ট করে দিলো। পছন্দের তালিকায় না থাকলে, কাজ না দেয়া এবং তা কেড়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে অনেক পরিচালক-প্রযোজকদের বিরুদ্ধে। এর মধ্যে করণ জোহর, সালমান খান ও যশরাজ ফিল্মসের বিরুদ্ধে স্বজনপোষণের সবচেয়ে বড় অভিযোগ উঠেছে।