বিএসআরএম কারখানায় শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনায় মামলা

18

নিউজ ডেস্ক: মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জে বাংলাদেশ স্টিল রি-রোলিং মিলসের (বিএসআরএম) কারখানায় গলিত তপ্ত লোহায় দগ্ধ হয়ে তিন শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রোববার (৭ জুন) জোরারগঞ্জ থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন মারা যাওয়া শ্রমিক আবুল কাশেমের শ্যালক বজলুর রহিম। এতে ওই কারখানার ফ্লোর ইনচার্জকে আসামি করা হয়েছে।

শনিবার (৬ জুন) বিকেলে রড উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান বিএসআরএম জোরারগঞ্জ কারখানায় লোহার গলিত সিসায় পুড়ে পাঁচজন শ্রমিক গুরুতর আহত হন। এর মধ্যে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নেওয়ার পর পরই মারা যান আবুল কাশেম (৫০) নামে এক শ্রমিক।

এরপর রোববার (৭ জুন) ভোর রাতে ঢাকা নেওয়ার পথে কুমিল্লা পদুয়া বাজার বিশ্বরোড পার হওয়ার পর দগ্ধ আরও দুই শ্রমিক মারা যান। তারা হলেন- গিয়াস উদ্দিন (২৪) ও নজরুল ইসলাম (২৮)। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে এখনও মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন আরও দুই শ্রমিক- নুর হোসেন (৩০) ও মহিউদ্দিন (২০)।

বিএসআরএম’র অ্যাসিট্যান্ট ম্যানেজার ওমর শোয়াইব জানান, ‘প্রত্যেক শ্রমিকই আমাদের সম্পদ। এ দুর্ঘটনায় মৃত্যু অনাকাঙ্ক্ষিত। তিন শ্রমিক মারা গেছেন, আরো দুইজন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে মামলার ব্যাপারে এখনও তিনি অবগত নন বলে বাংলানিউজকে জানান।

জোরারগঞ্জ থানার পরিদর্শক (ওসি) মফিজ উদ্দিন বলেন, ওই কারখানার ফ্লোর ইনচার্জকে আসামি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত করবে।