জাতীয়

মির্জা ফখরুলের পরিবর্তে গণসমাবেশে প্রধান অতিথি মোশাররফ

0
নিউজ ডেস্ক: বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশগুলোতে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। তবে এবার ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশে মির্জা ফখরুলের জায়গায় প্রধান...

দেশজুড়ে

কক্সবাজারের উখিয়া ক্যাম্পে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী এবং পুলিশের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।এতে দুই রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নিহত হয়েছেন। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের একজন ৮ নাম্বার ক্যাম্পের আশ্রিত মোহাম্মদ নুর প্রকাশ ইউনুছের ছেলে সলিম উল্লাহ (৩৩) ও অপরজনের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। দুই রোহিঙ্গা নিহতের ঘটনা স্বীকার করে উখিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী জানান, ৪০-৫০ জন রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী অস্ত্রসহ ক‍্যাম্প ৮ ইস্টের হেডমাঝি মো. রফিকে মারতে আসে।খবর পেয়ে ৮ এপিবিএনের টহলরত টিম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়।এসময় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা পুলিশ পুলিশ বলে গুলি ছুড়তে থাকে।আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে ঘটনাস্থলে দুজন রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নিহত হন।ঘটনাস্থল থেকে ২টি দেশীয় বন্দুক ও বিপুল পরিমাণ গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। রোহিঙ্গারা জানান, ওই ক্যাম্পে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নবী হোসেন গ্রুপের সদস্যদের ওপর হামলা চালায় আরসার লোকজন। এতে উভয় পক্ষের মধ্যে ব্যাপক গুলি বিনিময় হয়। পরে এ ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। তখন তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পুলিশও পাল্টা গুলি করে। এ সময় দুই রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন। নিহতদের লাশ জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশের গুলিতে ২ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নিহত

0
নিউজ ডেস্ক: কক্সবাজারের উখিয়া ক্যাম্পে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী এবং পুলিশের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।এতে দুই রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নিহত হয়েছেন। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উখিয়ার বালুখালী...

পুরো বিশ্ব

গুজরাট বিধানসভায় ১৮২ আসনের মধ্যে ১৫৬টিতে জয়ী হয়ে রেকর্ড গড়েছে বিজেপি। এই জয়কে ‘মোদির জয়’ হিসেবেই দেখছে দল। বৃহস্পতিবার ফল ঘোষণার পর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডার কথাতেই তা স্পষ্ট হয়। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার। তিনি বলেন, ‘স্বাধীন ভারতে রেকর্ড ভেঙে এই জয় আমরা পেয়েছি প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে। প্রধানমন্ত্রী যে, দেশ এবং গুজরাটের মানুষের সেবা করেছেন, তা এই জয়ে স্পষ্ট।’ যদিও প্রধানমন্ত্রী ভাষণ দিতে উঠে জয়ের কৃতিত্ব দিয়েছেন জনতাকে। অভিনন্দন জানিয়েছেন দলীয় নেতাকর্মী ও নির্বাচন কমিশনকে। হিমাচলপ্রদেশে হেরেছে বিজেপি, তবে সেখানকার মানুষকেও ধন্যবাদ দিতে ভোলেননি মোদি। দিল্লির উপনির্বাচনে হেরে সেখানকার মানুষকেও ধন্যবাদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন, এখানে না জিতলেও আসলে ভোটের ফল বিজেপির প্রতি মানুষের আস্থাই প্রকাশ করে।

গুজরাটে ১৮২ আসনের মধ্যে ১৫৬টিতে বিজেপির রেকর্ড জয়

0
নিউজ ডেস্ক: গুজরাট বিধানসভায় ১৮২ আসনের মধ্যে ১৫৬টিতে জয়ী হয়ে রেকর্ড গড়েছে বিজেপি। এই জয়কে ‘মোদির জয়’ হিসেবেই দেখছে দল। বৃহস্পতিবার ফল ঘোষণার পর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে...

খেলার মাঠে

আর্জেন্টিনা-নেদারল্যান্ড ম্যাচে সেয়ানে সেয়ানে লড়াই হচ্ছে। আর্জেন্টাইনদের চোখে চোখ রেখে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছে ডাচরা। দুই গোল খেয়ে পিছিয়ে থেকেও ৮৩ ও অতিরিক্ত সময়ে গোল করে খেলায় সমতায় ফেরে ডাচরা। ADVERTISEMENT মলিনা ও লিওনেল মেসির গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে সেমিফাইনালের পথে আর্জেন্টিনা। খেলার ৩৫ মিনিটে গোল করেন মলিনা। ৭৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে দলের ব্যবধান দ্বিগুন করেন মেসি। জিতলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত। আর হেরে গেলে বিদায় কনফার্ম। এমন কঠিন সমীকরণের কোয়ার্টার ফাইনালে নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি আর্জেন্টিনা। ডাচদের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মলিনার গোলে প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে আর্জেন্টিনা। কাতারের লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। খেলার ১৪ মিনিটে বাম পাশ থেকে আকুনার জোরালো ক্রসে ম্যাকএলিস্টার বলে মাথা ছোঁয়াতে পারলে এগিয়ে যেতে পারত আর্জেন্টিনা। ২৩ মিনিটে আবারো সুযোগ পায় আর্জেন্টিনা। এবার ডি বক্সের বাইরে থেকে মেসি তার নিজস্ব জায়গা থেকে বল পেয়ে দূরপাল্লার শট নিলে বল চলে যায় গোলবারের উপর দিয়ে। ২৫ মিনিট গোলের সুযোগ পেয়েছিল নেদারল্যান্ডস। কিন্তু বারুইনের শট চলে যায় গোলবারের বাইরে দিয়ে। ৩৪ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে ডি পলের দুর্বল শট রুখে দেন ডাচ গোলরক্ষক। খেলার ৩৫ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে বল একাই টেনে নিয়ে যান লিওনেল মেসি। ডি বক্সের বাইরে থেকে তিন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে পাস দেন মলিনাকে। বল পেয়ে সময় নষ্ট না করে গোলে পরিণত করেন তিনি। ৪১ মিনিটে গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন মেসি। কিন্তু ডিবক্সের ভেতর থেকে মেসির ডান পায়ের শট সোজা চলে যায় গোলরক্ষকের হাতে। প্রথমার্ধের শেষ দিকে ডাচরা গোলের চেষ্টা করলেও সফল হতে পারেননি। যে কারণে প্রথমাধ্যে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় আর্জেন্টিনা। দ্বিতীয়ার্ধের ৭৩ মিনিটে ডি বক্সের মধ্যে নেদারল্যান্ডসের ফুটবলার ফাউল করলে পেনাল্টি পায় আর্জেন্টিনা। পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুন করেন লিওনেল মেসি। খেলার ৮৩ মিনিটে দুর্দান্ত হেডে গোল করে ব্যবধান কিছুটা কমান ডাচ তারকা ওয়াউট উইঘোর্স্ট। খেলা শেষ হতে মাত্র ১মিনিট বাকি ছিল। ১ মিনিট কাটিয়ে দিতে পারলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত হতো আর্জেন্টিনার। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের একিবারে শেষ মুহূর্তে ডি বক্সের বাইরে থেকে ফ্রি কিক পায় নেদারল্যান্ডস। দারুণ বুদ্ধিদীপ্ত ফ্রি কিক থেকে গোল করে ডাচদের ঐতিহাসিকভাবে ম্যাচে ২-২ গোলে সমতায় ফেরান উইঘোর্স্ট। ম্যাচ গড়ালো অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময়ে। প্রসঙ্গত, শুক্রবার দিনের প্রথম ম্যাচে হতাশ করে ব্রাজিল। পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে হেরে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যায়।

আর্জেন্টিনা ২-২ নেদারল্যান্ডস, খেলা গড়াল অতিরিক্ত সময়ে

0
নিউজ ডেস্ক: আর্জেন্টিনা-নেদারল্যান্ড ম্যাচে সেয়ানে সেয়ানে লড়াই হচ্ছে। আর্জেন্টাইনদের চোখে চোখ রেখে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছে ডাচরা। দুই গোল খেয়ে পিছিয়ে থেকেও ৮৩ ও অতিরিক্ত সময়ে গোল...
বাংলাদেশি ফুটবল সমর্থকদের কাছে বিশ্বকাপ মানেই ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। কাতার বিশ্বকাপে ৩২টি দল অংশ নিলেও বাংলাদেশের ফুটবল সমর্থকদের প্রিয় দল দুটি, ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। ADVERTISEMENT দুর্ভাগ্য ব্রাজিল এবং ব্রাজিল প্রিয় বাংলাদেশি সমর্থকদের জন্য। দুর্দান্ত ফুটবল খেলে এগিয়ে থেকেও টাইব্রেকারে ক্রোয়েশিয়ার বিকক্ষে ৪-২ গোলের ব্যবধানে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেয় পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। তবে ব্রাজিল বিদায় নিলেও বাংলাদেশি আর্জেন্টাইন সমর্থকদের হতাশ করেননি লিওনেল মেসিরা। নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ৩৫ ও ৭৩ মিনিটে গোল করে সেমিফাইনালের স্বপ্ন দেখান মলিনা ও মেসি। কিন্তু ৮৩ মিনিটে দুর্দান্ত হেডে গোল করেন ব্যবধান কিছুটা কমান ডাচ তারকা ওয়াউট উইঘোর্স্ট। খেলা শেষ হতে মাত্র ১মিনিট বাকি ছিল। সেই সময়ে ফ্রি কিক পায় নেদারল্যান্ডস। দারুণ বুদ্ধিদীপ্ত ফ্রি কিক থেকে গোল করে ডাচদের ঐতিহাসিকভাবে ম্যাচে (২-২) সমতায় ফেরান উইঘোর্স্ট। নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা ২-২ ব্যবধানে ড্র হওয়ায় ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে। অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে দুই দল গোল দিতে ব্যর্থ হয়। তখন খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। পেনাল্টিশুটাউটে নেদারল্যান্ডসকে ৪-৩ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে লিওনেল মেসির নেতৃত্বাধীন আর্জেন্টিনা। ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে জার্মানির কাছে ফাইনালে হেরে বিদায় নেয় লিওনেল মেসির দল আর্জেন্টিনা। ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালের আগে বিদায় নেয় মেসিরা। কাতারে চলমান ফিফার ২২ততম বিশ্বকাপে সৌদি আরবের মতো তুলনামূলক দুর্বল দলের বিপক্ষে হেরে মিশন শুরু করে আর্জেন্টিনা। আজ কোয়ার্টার ফাইনালে নেদারল্যান্ডসকে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠে যায় মেসিরা।

বিদায় ব্রাজিল, সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনা

0
নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশি ফুটবল সমর্থকদের কাছে বিশ্বকাপ মানেই ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। কাতার বিশ্বকাপে ৩২টি দল অংশ নিলেও বাংলাদেশের ফুটবল সমর্থকদের প্রিয় দল দুটি, ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। দুর্ভাগ্য ব্রাজিল...
কাতার বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিল ব্রাজিল। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলের ব্যবধানে হেরে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যায় সেলেকাওরা।আর এর মাধ্যমেই টানা দ্বিতীয় বারের মতো ক্রোয়েশিয়া চলে গেছে বিশ্বকাপের শেষ চারে। পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলকে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠে যায় ক্রোয়েশিয়া। এজন্য অবশ্য ক্রোয়েশিয়া কোচ জ্লাটকো ডালিচ তার রক্ষণভাগকে বেশি কৃতিত্ব দিয়েছেন। ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে ক্রোয়েশিয়ার কোচ তার মিডফিল্ডকে বিশ্বসেরা আখ্যায়িত করে বলেন, আমার দল মিডফিল্ডে সেরা। শুধু সেরা নয়, বিশ্বসেরাই বলব। বিশ্বসেরা মিডফিল্ডের কারণ ব্যাখাও করেছেন তিনি, আমার মিডফিল্ডারদের যেমন গতি রয়েছে তেমনি আবার প্রতিপক্ষের গতিও রোধ করতে পারে। ব্রাজিলকে মিডফিল্ডে দারুণভাবে নিয়ন্ত্রণ করেছে আমার ফুটবলাররা। এই বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়াকে কেউ আলোচনায় রাখেনি। দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে নেইমার-ভিনিসিয়াসদের পারফরম্যান্স দেখে দুশ্চিন্তায় পড়ে গিয়েছিলেন ক্রোয়েশিয়ার কোচ জ্লাতকো দালিচ। আগে তিনি বলেছিলেন, টুর্নামেন্টের সবচেয়ে শক্তিশালী দল ব্রাজিল। এ পর্যন্ত আমরা যত ম্যাচ খেলেছি, তার চেয়ে এবারের ম্যাচটি একেবারেই ভিন্ন হবে। কারণ ব্রাজিল ফুটবল খেলতে ভালোবাসে। আমরা যদি বাস্তবতার কথা চিন্তা করি, তা হলে ব্রাজিল এ টুর্নামেন্টের সবচেয়ে শক্তিশালী দল। তাদের হাতে দারুণ সব অপশন রয়েছে। দুর্দান্ত একটা স্কোয়াড আছে ওদের, যা ভীতিকর। ফলে আমাদের জন্য এটি কঠিন পরীক্ষা হতে যাচ্ছে। দালিচ আরও বলেন, ম্যাচটি আমাদের কাছে কোয়ার্টার ফাইনাল নয়, এটিকে ফাইনাল ম্যাচ বলা যায়। আমরা আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব, আমরা খেলার আগেই হার মানব না। আমরা আমাদের নিজেদের মতো করে ব্রাজিলকে রুখে দেওয়ার চেষ্টা করব। কিনউত সেই কোচের সেই ভয় কাটিয়েই ক্রোয়েশিয়া এখন সেমিফাইনালে। টানা দুই ম্যাচ টাইব্রেকারে জিতে তারা শেষ চারে। টাইব্রেকারে ম্যাচ নিয়ে যাওয়া তাদের কৌশল কি না এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, টাইব্রেকার আমাদের অন্যতম শক্তি। তবে আমরা ম্যাচেও নিয়ন্ত্রণ রাখি। মিডফিল্ডকে সেরা বললেও আজকের ম্যাচের নায়ক মূলত ক্রোয়েট গোলরক্ষক লিভাকোভিচ। গোলরক্ষকই ম্যাচের পার্থক্য গড়ে দিয়েছেন বলে স্বীকার করলেন কোচ, নিঃসন্দেহে সে ম্যাচের মূল চরিত্র। ব্রাজিলের ফুটবলাররা তার সামনে এসে আত্মবিশ্বাস হারিয়েছে। দারুণ সেভ করেছে সে। ফলে পরবর্তীতে ব্রাজিলের ফুটবলাররা আত্মবিশ্বাস নিয়ে শট সেভাবে করতে পারেনি। কিন্তু এর আগের বিশ্বকাপের পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, সব মিলিয়ে চারটি ম্যাচের মধ্যে তিনটিতেই জয় ছিল ব্রাজিলের; একটি ম্যাচ ড্র হয়েছে। ২০০৫ সালে ব্রাজিল বনাম ক্রোয়েশিয়া সর্বপ্রথম মুখোমুখি হয়েছিল আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচে। সে ম্যাচটি ১-১ গোল সমতায় ড্র হয়। এর পর ২০০৬ বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো বিশ্ব আসরে মুখোমুখি হয় দল দুটি। যেখানে ব্রাজিল ১-০ গোলে ক্রোয়েশিয়াকে পরাজিত করে। ২০১৪ সালে পুনরায় দুদলের দেখা হয়। সেখানে ব্রাজিল ৩-১ গোলে ক্রোয়েশিয়াকে পরাজিত করে। সর্বশেষ ২০১৮ সালে আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচে দেখা হয়েছিল এই দুটি ফেভারিট দলের। সেই ম্যাচেও ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় পেয়েছিলেন তিতের শিষ্যরা।

যে কৌশলে ব্রাজিলকে হারাল ক্রোয়েশিয়া!

0
নিউজ ডেস্ক: কাতার বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিল ব্রাজিল। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলের ব্যবধানে হেরে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যায় সেলেকাওরা।আর এর মাধ্যমেই টানা দ্বিতীয় বারের...
মলিনা ও লিওনেল মেসির গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে সেমিফাইনালের পথে আর্জেন্টিনা। খেলার ৩৫ মিনিটে গোল করেন মলিনা। ৭৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে দলের ব্যবধান দ্বিগুন করেন মেসি। ADVERTISEMENT জিতলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত। আর হেরে গেলে বিদায় কনফার্ম। এমন কঠিন সমীকরণের কোয়ার্টার ফাইনালে নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি আর্জেন্টিনা। ডাচদের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মলিনার গোলে প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে আর্জেন্টিনা। কাতারের লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। খেলার ১৪ মিনিটে বাম পাশ থেকে আকুনার জোরালো ক্রসে ম্যাকএলিস্টার বলে মাথা ছোঁয়াতে পারলে এগিয়ে যেতে পারত আর্জেন্টিনা। ২৩ মিনিটে আবারো সুযোগ পায় আর্জেন্টিনা। এবার ডি বক্সের বাইরে থেকে মেসি তার নিজস্ব জায়গা থেকে বল পেয়ে দূরপাল্লার শট নিলে বল চলে যায় গোলবারের উপর দিয়ে। ২৫ মিনিট গোলের সুযোগ পেয়েছিল নেদারল্যান্ডস। কিন্তু বারুইনের শট চলে যায় গোলবারের বাইরে দিয়ে। ৩৪ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে ডি পলের দুর্বল শট রুখে দেন ডাচ গোলরক্ষক। খেলার ৩৫ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে বল একাই টেনে নিয়ে যান লিওনেল মেসি। ডি বক্সের বাইরে থেকে তিন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে পাস দেন মলিনাকে। বল পেয়ে সময় নষ্ট না করে গোলে পরিণত করেন তিনি। ৪১ মিনিটে গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন মেসি। কিন্তু ডিবক্সের ভেতর থেকে মেসির ডান পায়ের শট সোজা চলে যায় গোলরক্ষকের হাতে। প্রথমার্ধের শেষ দিকে ডাচরা গোলের চেষ্টা করলেও সফল হতে পারেননি। যে কারণে প্রথমাধ্যে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় আর্জেন্টিনা। দ্বিতীয়ার্ধের ৭৩ মিনিটে ডি বক্সের মধ্যে নেদারল্যান্ডসের ফুটবলার ফাউল করলে পেনাল্টি পায় আর্জেন্টিনা। পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুন করেন লিওনেল মেসি। প্রসঙ্গত, শুক্রবার দিনের প্রথম ম্যাচে হতাশ করে ব্রাজিল। পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে হেরে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যায়।

মেসি-মলিনার গোলে সেমিফাইনালের পথে আর্জেন্টিনা

0
নিউজ ডেস্ক: মলিনা ও লিওনেল মেসির গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে সেমিফাইনালের পথে আর্জেন্টিনা। খেলার ৩৫ মিনিটে গোল করেন মলিনা। ৭৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে...
জিতলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত। হারলে বিদায় কনফার্ম। এমন কঠিন সমীকরণের কোয়ার্টার ফাইনালে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে শ্বাসরুদ্ধকর লড়াইয়ে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলের ব্যবধানে জিতে সেমিফাইনালে উঠে যায় আর্জেন্টিনা। হেরে গেলেও আর্জেন্টাইনদের চোখে চোখ রেখে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছে ডাচরা। দুই গোল খেয়ে পিছিয়ে থেকেও দারুণ নৈপূণ্য দেখিয়ে খেলায় সমতায় ফেরে তারা। কাতারের লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে মলিনা ও লিওনেল মেসির গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে সেমিফাইনালের পথেই ছিল আর্জেন্টিনা। খেলার ৩৫ মিনিটে গোল করেন মলিনা। ৭৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে দলের ব্যবধান দ্বিগুন করেন মেসি। কিন্তু খেলার ৮৩ মিনিটে গোল করে ব্যবধান কিছুটা কমান ওয়াউট উইঘোর্স্ট। আর মাত্র ১ মিনিট সময় পার করতে পারলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত হতো মেসিদের। খেলার এমন অন্তিম মুহূর্তে দারুণ বুদ্ধিদীপ্ত ফ্রি কিক থেকে গোল করে ডাচদের ঐতিহাসিকভাবে ম্যাচে ২-২ গোলে সমতায় ফেরান উইঘোর্স্ট। নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা ২-২ ড্র হওয়ায় ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে। অতিরিক্ত সময়ে কোনো গোল হয়নি। যে কারণে খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। টাইব্রেকারে নেদারল্যান্ডসকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠে যায় আর্জেন্টিনা।

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে টাইব্রেকারে জিতে সেমিতে আর্জেন্টিনা

0
নিউজ ডেস্ক: জিতলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত। হারলে বিদায় কনফার্ম। এমন কঠিন সমীকরণের কোয়ার্টার ফাইনালে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে শ্বাসরুদ্ধকর লড়াইয়ে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলের ব্যবধানে জিতে সেমিফাইনালে উঠে যায়...

বায়োস্কোপ

নাট্যাঙ্গনের সিনিয়র অভিনেতা মাসুদ আলী খান। ৯৪ বছরে পা দেওয়া এ অভিনেতার সময় কাটে এখন হুইল চেয়ারে বসে। রাজধানীর গ্রিন রোডে নিজ বাসাতেই থাকেন তিনি। ইচ্ছা করে অভিনয় করতে। যদি হুইল চেয়ারে বসে অভিনয় করার তেমন সুযোগ থাকত, তবেই হয়তো তিনি সেটাই করতেন। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, ‘দীর্ঘদিনের কর্মস্থলের অনেককেই দেখতে ইচ্ছা করে, তাদের সঙ্গে গল্প করতে ইচ্ছা করে। কিন্তু আমি চাইলেই তো আর হবে না। যাদের দেখতে ইচ্ছা করে তাদেরও তো সময় থাকতে হবে।’ তার খুব ইচ্ছা হয়েছিল অভিনেত্রী দিলারা জামান, তানভীন সুইটি ও অপি করিমকে দেখার। কারণ এ তিনজনই তার নিয়মিত খোঁজখবর রাখেন। সম্প্রতি সাংবাদিক অভি মঈনুদ্দীনের উদ্যোগে মাসুদ আলী খানের বাসায় গিয়ে উপস্থিত হন এ তিন অভিনেত্রী। তাদের একসঙ্গে দেখতে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে ওঠেন মাসুদ আলী খান। মেতে ওঠেন খোশগল্পে। দীর্ঘদিনের সহকর্মীদের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘অনেকদিন পর দিলারা, সুইটি ও অপিকে দেখে কী যে ভালো লেগেছে তা ভাষায় প্রকাশের নয়। বারবারই মনে হচ্ছিল ঈদের আনন্দের মতো সময় কাটাচ্ছি আমি। অপিকে ধন্যবাদ এ উদ্যোগের জন্য। শিল্পীদের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা, তারা আমার সঙ্গে গল্প করতে এসেছিল। সবার ভালোবাসার কাছে আমি ঋণী হয়ে গেলাম।’ দিলারা জামান বলেন, ‘মাসুদ ভাই আমাদের পরম শ্রদ্ধার মানুষ। সময় সুযোগ পেলে আবার তার কাছে যাব।’ সুইটি বলেন, ‘এমন কিংবদন্তি শিল্পীর সান্নিধ্যে বারবার সময় কাটাতে ইচ্ছা করে। তাকে সময় দিতে পেরে আমি, আমরা গর্বিত।’ অপি করিম বলেন, ‘আমি তো তাকে বাবা বলেই ডাকি। প্রায়ই তার খোঁজখবরও রাখি। অনেকদিন পর বাবাকে দেখে, তার সঙ্গে সময় কাটিয়ে ভীষণ ভালো লাগল।’

মাসুদ আলী খানের ইচ্ছা পূরণ করলেন সুইটি-অপি করিম

0
নিউজ ডেস্ক: নাট্যাঙ্গনের সিনিয়র অভিনেতা মাসুদ আলী খান। ৯৪ বছরে পা দেওয়া এ অভিনেতার সময় কাটে এখন হুইল চেয়ারে বসে। রাজধানীর গ্রিন রোডে নিজ বাসাতেই...

ফিচার

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) ক্যাম্পাসে নিজের শারীরে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন সাইফুর রহমান রাফি (২৮) নামের এক যুবক। বুধবার রাত নয়টার দিকে রামেক ক্যাম্পাসের নুরুন্নবী হোস্টেলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। পরে সংকটাপন্ন অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দগ্ধ রাফি রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার হেতেমখাঁ এলাকার মো. বাবুলের ছেলে। তার মা রামেক হাসপাতালে কাজ করেন। রামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের ইনচার্জ ডা. আফরোজা নাজনীন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসের নুরুন্নবী হোস্টেলের সামনে নিজ শরীরে আগুন দেন রাফি। গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে জরুরি বিভাগে আনলে সেখান থেকে তাকে ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে (বার্ন ইউনিটে) ভর্তি করা হয়েছে। ডা. আফরোজা আরও বলেন, রাফি মানসিক রোগী বলে জানিয়েছেন তার পরিবারের সদস্যরা। রাফির শরীরের অধিকাংশ স্থান পুড়ে গেছে। তার অবস্থা খুবই সংকটাপন্ন। আমরা সর্বোচ্চ চিকিৎসা দেওয়ার চেষ্টা করছি। এ ব্যাপারে রাজপাড়া থানার ওসি সিদ্দিকুর রহমান জানান, বিষয়টি সম্পর্কে পুলিশ অবগত আছে। ওই যুবক কেন শরীরে আগুন দিয়েছে, সে ব্যাপারে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। এ ঘটনার সঙ্গে কেউ যুক্ত থাকলে তাকেও শনাক্ত করার জন্য পুলিশ কাজ শুরু করেছে।

রামেকে শরীরে আগুন দিয়ে যুবকের আত্মহত্যার চেষ্টা

0
নিউজ ডেস্ক: রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) ক্যাম্পাসে নিজের শারীরে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন সাইফুর রহমান রাফি (২৮) নামের এক যুবক। বুধবার রাত নয়টার দিকে রামেক...
Advertisement
4,860FansLike
1,900SubscribersSubscribe
Advertisement

অর্থনীতি

চলমান অর্থনৈতিক সংকটের মাঝেই ২০২৩ সাল থেকেই কিছু বড় প্রকল্পের বৈদেশিক ঋণ পরিশোধের ধাক্কা শুরু হচ্ছে। এটি দিন দিন বাড়তেই থাকবে। ২০২৭ সালে গিয়ে সেটি সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছাবে। এ থাক্কা পরবর্তী আরও কয়েক বছর পর্যন্ত চলবে। বিশেষ করে আগামী বছর থেকে চীন, ভারত এবং এশিয়ান ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকের (এআইআইবি) ঋণের সুদ ও আসলসহ পরিশোধ শুরু হবে। এছাড়া রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে রাশিয়া থেকে নেওয়া ঋণের গ্রেস পিরিয়িড (রেয়াত কাল) শেষ হয়ে ২০২৭ সালে শুরু হবে মূল ঋণের কিস্তি। ২০২৮ সালে শুরু হবে মেট্রোরেল প্রকল্পের ঋণ পরিশোধ কার্যক্রম। এসবই দীর্ঘমেয়াদি ঋণ। অর্থ মন্ত্রণালয় ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি) সূত্র এসব তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, এর বাইরে অন্যান্য খাতে নেওয়া ঋণও সুদ ও আসল এখন পরিশোধ করতে হচ্ছে। এ ঋণ পরিশোধ করতে গিয়েই প্রবল চাপে পড়েছে দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ। আগামী বছর থেকে ওইসব ঋণের কিস্তি পরিশোধ শুরু হলে রিজার্ভে চাপ আরও বাড়বে। এদিকে স্বল্পমেয়াদি বেশকিছু ঋণের কিস্তি পরিশোধের মেয়াদ জুন পর্যন্ত বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। জুনের পর ওইসব ঋণ পরিশোধ শুরু হলে রিজার্ভে চাপ আরও বাড়বে। এদিকে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এক প্রতিবেদনেও বলা হয়েছে, চলতি অর্থবছরজুড়েই রিজার্ভের ওপর চাপ থাকবে। বর্তমানে দেশের বৈদেশিক ঋণের স্থিতি ২ হাজার ২০০ কোটি ডলার। এর মধ্যে স্বল্পমেয়াদি ঋণ ১ হাজার ৬০০ কোটি ডলার। দীর্ঘমেয়াদি ঋণ ৮০০ কোটি ডলার। স্বল্পমেয়াদি ঋণের কারণেই অর্থনীতিতে ঝুঁকির মাত্রা বেশি। সূত্র জানায়, ধীরে ধীরে ঋণ পরিশোধের পরিমাণ বাড়ছে। চলতি অর্থবছরে সব মিলিয়ে ২৭৮ কোটি ডলার পরিশোধ করতে হবে। ২০২৯-৩০ অর্থবছরে ঋণ পরিশোধে সর্বোচ্চ ৫১৫ কোটি ডলার খরচ হবে। এরপর ঋণ পরিশোধ কমতে থাকবে। বিদ্যমান ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে আগামী ৩ বছর বাংলাদেশের ক্রমপুঞ্জীভূত ঋণের অঙ্কও বাড়তে থাকবে। এদিকে বুধবার বিশ্বব্যাংকের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বৈদেশিক ঋণ পরিশোধ করতে গিয়ে বাংলাদেশ বেশ চাপে পড়েছে। ঋণ বাড়ার কারণে ঋণ ও আসল পরিশোধের মাত্রাও বেড়েছে। ২০২০ সালে দীর্ঘমেয়াদি ঋণের ৩৭৩ কোটি ডলারের ঋণ ও সুদ পরিশোধ করা হয়েছিল। এর মধ্যে মূলঋণ ২৮৭ কোটি ডলার এবং সুদ ৮৬ কোটি ডলার। গত বছরে একই খাতে ঋণ ও সুদ বাবদ পরিশোধ করা হয়েছে ৫৩০ কোটি ডলার। এর মধ্যে আসল ৪২১ কোটি ডলার এবং সুদ ১০৯ কোটি ডলার। ২০২০ সালের তুলনায় ২০২১ সালে ঋণ পরিশোধ বেড়েছে ১৫৭ কোটি ডলার। এখন প্রতি বছরই পরিশোধের হার বাড়বে। এর বাইরে স্বল্পমেয়াদী ঋণও পরিশোধ করতে হচ্ছে। এগুলোর দায় আরও বেশি। জানতে চাইলে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বৃহস্পতিবার যুগান্তরকে বলেন, ‘আমি আগেই বলেছি ঋণ পরিশোধের চাপ আসছে। এখন যেসব ঋণের সুদ বেশি এবং কঠিন শর্তযুক্ত সেগুলো নেওয়া থেকে সরকারকে বিরত থাকতে হবে। এছাড়া ঋণ পরিশোধে বৈদেশিক মুদ্রার মজুত এবং আয়ের মূল্যায়ন করতে হবে। বর্তমানে এই জায়গায় কোনো স্বচ্ছতা ও মূল্যায়ন নেই। বৈদেশিক ঋণ পরিশোধের বড় চাপ আসলে বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেনে সমস্যা তৈরি হবে। সেই সঙ্গে টাকার মান দুর্বল হতে পারে, বিনিয়োগ কমে যাবে, মূল্যস্ফীতি বৃদ্ধিসহ নানা ক্ষেত্রে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। ফলে সতর্ক ব্যবস্থা হিসাবে এখন থেকে ঋণের কিস্তি পরিশোধের মেয়াদ বাড়িয়ে রিজার্ভের ওপর চাপ কমানো যায় কিনা সেই চেষ্টা করতে হবে। ৩ ডিসেম্বর বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) গবেষণা সম্মেলনে এ প্রসঙ্গে কথা বলেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সচিব শরিফা খান। তিনি বলেন, আমরা এখনো সক্ষমতার দিক থেকে অনেক কম ঋণ নিচ্ছি। তবে আপাতত কম সুদে ও সহজ শর্তের ঋণ বেশি গ্রহণ করা হচ্ছে। কেননা আগামীতে এলডিসি উত্তরণ ঘটলে সহজ শর্তের ঋণ আর পাওয়া যাবে না। তিনি আরও বলেন, বৈদেশিক ঋণ পরিশোধের ক্ষেত্রেও কোনো সমস্যা হবে না। অতীতে বাংলাদেশ কখনও ঋণ পরিশোধের ক্ষেত্রে কোনো সমস্যায় পড়েনি এবং কোনো কিস্তিও বাকি পড়েনি। এবারও পড়বে না। সূত্র জানায়, বর্তমানে চীনের কাছে বিভিন্ন প্রকল্পের বিপরীতে ২১টি ঋণ চলমান আছে। এর মধ্যে ৯টি ঋণের সুদ ও আসল পরিশোধ করা হচ্ছে। ২০২৩ সালের ৬টি ঋণের রেয়াত কাল শেষ হবে। ফলে সুদ ও আসল মিলেই পরিশোধ শুরু হবে। এছাড়া ২০২৪ সালে পরিশোধ শুরু হবে একটি ঋণের সুদ ও আসল। ২০২৫ সালে শুরু হবে ৪টি ঋণের কিস্তি এবং ২০২৭ সালে শুরু হবে একটির কিস্তি। এসব ঋণের বর্তমানে শুধু সুদের অংশ কিস্তি হিসাবে নেওয়া হচ্ছে। রেয়াতকালের পর সুদ ও আসল দুটো মিলেই পরিশোধ করতে হবে। চীনা ঋণের সাধারণত সুদ হার ২ দশমিক ২ শতাংশ। ৫ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ১৫ বছরের মধ্যে এসব ঋণ পরিশোধ করতে হয়। চীনের ঋণে বাস্তবায়ানীন উল্লেখযোগ্য একটি প্রকল্প হচ্ছে কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ। ইতোমধ্যেই এ প্রকল্পের একটি টিউবের কাজ শেষে উদ্বোধন করা হয়েছে। এ প্রকল্পে চীনের ঋণ রয়েছে ১৯৫ কোটি ডলার। ২০২৩ থেকে শুরু হয়ে ২০৩১ সালের মধ্যে পুরো ঋণ পরিশোধ করতে হবে। অন্যান্য কয়েকটি প্রকল্প হচ্ছে-শাহজালাল সার কারখানা, দাশেরকান্দি পয়োবর্জ্য শোধনাগার, ইনফো সরকার-৩, মডার্নাইজেশন অব টেলিকমিউনিকেশন নেটওয়ার্ক ফর ডিজিটাল কানেকশন, বিদ্যুৎ নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ ও বিতরণ ও সম্প্রসারণ ইত্যাদি। এসব প্রকল্পে ঋণের অর্থ ছাড় হয়ে গেছে। আগামীতে এসব ঋণও শোধ করতে হবে। ইতোমধ্যে শাহজালাল সার কারখানা, পদ্মার পানি শোধনাগার ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়ন এ তিন প্রকল্পে পাঁচ বছর গ্রেস পিরিয়ড শেষ হয়ে যাওয়ায় ঋণ পরিশোধ শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত শত কোটি ডলারের মতো ঋণ পরিশোধ হয়েছে। বাকি প্রকল্পগুলোর চলতি বছর ও আগামী বছর থেকে শুরু হয়ে আগামী ১০ বছরে সব অর্থ পরিশোধ করতে হবে। এদিকে এআইআইবির বিভিন্ন প্রকল্পের বিপরীতে মোট ঋণ রয়েছে ১৪টি। এর মধ্যে দুটি ঋণের রেয়াতকাল শেষ হয়ে যাওয়ায় সুদ ও আসল পরিশোধ করা হচ্ছে। বাকি ১২টি ঋণের মধ্যে ২০২৩ সালের রেয়াতকাল শেষ হওয়ায় দুটি প্রকল্পের ঋণ পরিশোধ শুরু হবে। ২০২৪ সালে শুরু হবে আরও ২টি প্রকল্পের। সবচেয়ে বেশি ২০২৫ সালে কিস্তি শুরু হবে ৬টি ঋণের। এছাড়া ২০২৬ এবং ২০২৭ সালে একটি করে ঋণের কিস্তি শুরু হবে। এ সংস্থার সুদের হার কিছুটা বেশি এবং কঠিন শর্ত রয়েছে। ভারতের তিনটি এলওসি (লাইন অব ক্রেডিট) মিলে মোট ঋণ রয়েছে ৩টি। একেকটি ঋণে একাধিক প্রকল্প রয়েছে। এর মধ্যে ২০২৩ সালে রেয়াতকাল শেষ হওয়ায় কিস্তি শুরু হবে দুটি ঋণের। ২০২৪ সালে শুরু হবে একটি ঋণের কিস্তি। সূত্র জানায়, তিনটি এলওসির আওতায় গত এক যুগে ভারতের সঙ্গে প্রায় ৭৩৬ কোটি ডলারের ঋণচুক্তি হয়েছে। ভারতের ঋণের পরিশোধের সময়সীমা গ্রেস পিরিয়ডসহ ১৫ বছর। সুদের হার ১ শতাংশ। তবে শর্ত হলো ভারতীয় ঋণের প্রকল্পে অন্তত ৬৫ শতাংশ কেনাকাটা ভারত থেকে করতে হবে। এসব ঋণ প্যাকেজের আওতায় ৩০টির বেশি প্রকল্প চলছে। ছাড়ও হয়েছে ১০০ কোটি ডলারের বেশি। ইতোমধ্যে ১০ কোটি ডলারের বেশি ঋণ পরিশোধ হয়েছে। ২০৩২ সালের মধ্যে বাকি ঋণ পরিশোধ করতে হবে। এদিকে ২০২৭ সাল থেকে রেয়াতকাল শেষ হয়ে যাচ্ছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পের ঋণের। প্রতিবছর দুটো করে কিস্তি পরিশোধ করতে হবে। ২০২৭ সালেরই ২৮ কোটি ৪০ লাখ ডলার করে দুটো কিস্তিতে দিতে হবে ৫৬ কোটি ৮ লাখ ডলার। যেটি এক বছরেই স্থানীয় মুদ্রায় (প্রতি ডলার ১০০ টাকা ধরে) দাঁড়ায় ৫ হাজার ৬৮০ কোটি টাকা। এ প্রকল্পে রাশিয়া মোট ঋণ দিচ্ছে ১ হাজার ১১৭ কোটি ডলার। এর মধ্যে দেশটি ছাড় করেছে ৫০০ কোটি ডলার। বাকি আছে ৬১৭ কোটি ডলার। এ ঋণের সুদের হার লন্ডন ইন্টার ব্যাংক অফারড রেটের (লাইবর) সঙ্গে পৌনে ২ শতাংশ যোগ করে নির্ধারণ করা হয়। বর্তমানে ৬ মাস মেয়াদি ডলার বন্ডের সুদেও হার ৫ দশমিক ২ শতাংশ। এর সঙ্গে পৌনে দুই শতাংশ যোগ করলে সুদের হার দাঁড়ায় ৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ। ১০ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ২০ বছরের মধ্যে এ ঋণ পরিশোধ করতে হবে। ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (মেট্রোরেল)-লাইন-৬ এর আওতায় ঢাকা মহানগরীতে উত্তরা থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক পর্যন্ত মেট্রোরেল নির্মাণের ব্যয় প্রথম ছিল ২১ হাজার ৯৮৫ কোটি ৭ লাখ টাকা। এর মধ্যে জাইকা সহায়তা দেবে ১৬ হাজার ৫৯৪ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। পর্যায়ক্রমে জাইকা ঋণ সহায়তা দিচ্ছে। এসব ঋণের রেয়াতকাল শেষে ২০২৮ সালে মূল ঋণ পরিশোধ শুরু হবে।

আগামী বছর থেকেই আসছে বড় ধাক্কা

0
নিউজ ডেস্ক: চলমান অর্থনৈতিক সংকটের মাঝেই ২০২৩ সাল থেকেই কিছু বড় প্রকল্পের বৈদেশিক ঋণ পরিশোধের ধাক্কা শুরু হচ্ছে। এটি দিন দিন বাড়তেই থাকবে। ২০২৭ সালে...
Advertisement

টুকরো খবর

সর্বশেষ সংবাদ